রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৩৪ অপরাহ্ন

ঝালকাঠি পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে শহরের বিকনায় বিরোধী দুগ্রুপে সমঝোতা ও সহবস্থানের অঙ্গিকার

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২৯ জুলাই, ২০১৬
  • ২৭৭ বার পড়া হয়েছে

 

 

  ঝালকাঠি সংবাদদাতাঃ- অবশেষে ঝালকাঠির বিকনা এলাকায় কয়েক দফা হামলা-মামলার ও সহিংসতার পর ঝালকাঠি পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহার নির্দেশে অশান্ত পরিবেশ কে শান্ত করা সম্ভব হয়েছে বলে জানাগেছে। বুধবার সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) এমএম মাহমুদ হাসান ¯’ানীয় বাসন্ডা ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধ মোবারেক হোসেন মল্লিক ও জেলা যুবলীগ নেতা কাউন্সীলর রেজাউল করিম জাকির সহ ¯’ানীয় গন্যমান্যদের কে নিয়ে আলোচনা পূর্বক এ দু’গ্রুপের মধ্যে সমঝোতা হয়েছে।    

   জানাগেছে, জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বিকনা এলাকায় দুই পক্ষের লোকজনের  মধ্যে বেশ কয়েক মাস ধরে হামলা-মামলার ও সহিংসতা চলে আসছে। এসব ঘটনায় পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তা, থানা পুলিশ ও ¯’ানীয় গন্যমান্যরাও বিভ্রত ও অস্ব¯ি’কর অব¯’ার মধ্যে পড়ে।  আর এঅব¯’া উত্তরনে পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা বিষয়টির ¯’ায়ী সমাধানের লক্ষে এএসপি সার্কেল এমএম মাহমুদ হাসানকে নির্দেশ দেন। তিনি জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সহ বিবাদমান দুপক্ষের প্রদানদের সাথে ব্যক্তিগত আলোচনা সাপেক্ষে বুধবার সবাইকে নিয়ে এক জায়গায় বসেন। এসময় পূর্বের কয়েক দফা বিরোধ-সংঘর্ষে একজনের একটি পা ও একজনের হাতের ২ টি আঙ্গুল হারানো সহ বেশ কয়েকজন গুরুতর জখম ও আহতের বিষয়টি উঠে আসে। পরিশেষে দু,গ্রুপের আহতদের চিকিৎসা, ক্ষতিপুরন নির্ধারন ও স্বস্ব মামলা আইন মোতাবেক প্রত্যাহার সিদ্ধান্তে উভয় পক্ষ সন্তষ্ট হয়ে মেনে নেয়। ভবিষ্যতে দুপক্ষের কেউ কোন ধরনের দাংগা-হাংগামা বা বিরোধ সৃষ্টি করবেনা মর্মে অঙ্গীকার করেন।

    দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতা ও সহঅব¯’ানের এ সংবাদে ¯’ানীয় এলাকাবাসী আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং এধরনের পদক্ষেপের মাধ্যমেই পুলিশ যে জনগনের বন্ধু এ কথার সত্যতা প্রমান করে বলে প্রতিক্রিয়া জানান।#
 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451