সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:১২ পূর্বাহ্ন

টি-টোয়েন্টিতে চারশতাধিক রানের অনবদ্য রেকর্ড!

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১০ মার্চ, ২০১৭
  • ১৪২ বার পড়া হয়েছে

এ.কে.রিদয় পারভেজ(স্পোর্টস রিপোর্টার)
কে কত সেরা বোলার তার প্রমাণ মিলে টি-টোয়েন্টিতে। বোলিং কে তুলোধোনা করার প্রায় সব মন্ত্রই ব্যাটসম্যানের জানা । আর যেখানে স্মিথ-স্যামুয়েলসের মতো বিশ্ববিখ্যাত তারকা ব্যাটিং এ তাও আবার হংকং এর মাটিতে সেখানে তো বোলিং তুলোধোনা হবেই!!

হংকং এর মাটিতে রীতিমতো টর্নেডো চালালেন স্মিথ-স্যামুয়েলস।

একের পর এক চার-ছক্কা হাকিয়ে ২০০ রানের টার্গেট পূর্ণ করলেন ১৪.৩ ওভারেই! অক্ষত ছিল ৮ টি মহামূল্যবান উইকেট।
সেই সাথে হংকং এর মাটিতে এক টি-টোয়েন্টিতে চারশতাধিক রানের রেকর্ডও পূর্ণ হলো।
পুরো ম্যাচে ৩৪.৩ ওভারে সংগ্রহ হয় ৪০৩ রান!!
উইকেটের পতন হয় মোট ৮ টি!
৫.৩ ওভারও বাকী থেকেই এই সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি আসে। সাথে আক্রমনাত্নক খেলা স্মিথ-স্যামুয়েলসও অপরাজিত থাকেন।
হংকং এর মাটিতে টি-টোয়েন্টিতে এটাই সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।

এর আগে প্রথমে ব্যাটিং এ নেমে কোর্টনার-জর্ডানের ঝড়ো ব্যাটে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৯৯ রানে পাহাড়সম স্কোর দাড় করে সিটি কাইটাক।
কোর্টনার ৫৭ বলে ৫টি চার এবং ৬টি ছয়ের সাহায্যে ৮৭ রানের ঝড়ো এক ইনিংস উপহার দেন। বাকিটুকু ইংলিশ তারকা অলরাউন্ডার ক্রিস জর্ডানের ৩৭ বলে ৫৭ রানে দলকে বড় পুঁজি গড়ে কাইটাক।

পাকিস্তানের ইয়াসির আরাফাত ৪ ওভারে ৪৩ রানে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন।

২০০ রানের বড় টার্গেটে ব্যাটিং এ নেমে শুরু থেকেই বোলারদের উপর চড়াও হন ক্যারিবিয়ান তারকা স্মিথ-সামুয়েলস। ৫৯ বলে ১৪২ রানের এই তৃতীয় উইকেট জুটিতে ৩৩ বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় কোলুন ক্যানটিনস।

ক্যারিবিয়ান তারকা অলরাউন্ডার ডোয়াইন স্মিথ মাত্র ৩২ বলে সেঞ্চুরী পূর্ণ করেন।মাত্র ৪০ বল খেলে শেষ পর্যন্ত ১২১ রানে অপরাজিত থেকে জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন তারা । স্মিথের ৪০ বলের এই ঝড়ো ইনিংসটি ছিল ৭টি চার ও ১৩টি ছক্কার সাহায্যে গড়া।
উল্লেখ্য, তার ১২১ রানের মধ্যে ১০৬ রান-ই আসে বাউন্ডারী থেকে!

সতীর্থ মারলন সামুয়েলসও মাত্র ৩৩ বলে ৫৯ রান।
চার-ছক্কার ফুলঝরি দিয়ে শেষ পর্যন্ত মাঠে অপরাজিত ছিলেন তিনিও।
ফলে ৮ উইকেটের বড় জয় দিয়েই এই আসরের যাত্রা শুরু হলো কোলুন ক্যাটেনসের।

বোলিং এ ক্রিস জর্ডান ও রায়াদ এমরিচ নেন একটি করে উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
সিটি কাইটাক ১৯৯/৬(২০ ওভার)
কোর্টজার ৮৭(৫৭)
জর্ডান ৫৭(৩৭)
ইয়াসির আরাফাত ৪-০-৪৩-২
নাওয়াজ ৪-০-২৫-১

কোলুন ক্যানটেনস ২০৪/২ (১৪.৩ ওভার)
ডোয়াইন স্মিথ ১২১* (৪০)
মারলন সামুয়েলস ৫৯* (৩৩)
জর্ডান ৪-০-৩৯-১
এমরিচ ৪-০-৪৫-১।
ফলাফল: কোলুন ক্যানটেনস ৮ উইকেটে জয়ী।।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451