শনিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৭ পূর্বাহ্ন

তালার জাতপুর টেকনিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ভর্তি সংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগ

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০১৬
  • ২৪৯ বার পড়া হয়েছে

তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি ঃ

সাতক্ষীরার তালা উপজেলার জাতপুর টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট

কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে ভর্তি সংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এ

ঘটনায় ভুক্তভোগি শিক্ষার্থীরা গত বুধবার কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি

ও তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট লিখিত অভিযোগ করেছেন।

তালা উপজেলার জাতপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম ফকিরের পুত্র মোঃ আল

আমিন, মজিবর শেখের পুত্র মোঃ মনিরুল ইসলাম, মোঃ ফরিদ হোসেন শেখের

পুত্র মোঃ সাকিব হাসানসহ কয়েকজন ছাত্র লিখিত অভিযোগে জানান,

তারা ২০১৬ সালে এস,এস,সি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে বাড়ির পাশে অবস্থিত

জাতপুর টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজে ভর্তির জন্য

আবেদন করে। দরিদ্র পরিবারের ঐ সন্তানদের দাবী, দূরবর্তী কোন কলেজে ভর্তি

হওয়া তাদের জন্য ব্যয় বহুল ও কষ্টসাধ্য। কিন্তু ভর্তি আবেদনের শেষ দিনে তারা

জানতে পারে, তাদের ভর্তির আবেদনটি গ্রহণ করা হয়নি। কোন উপায় না

দেখে বাধ্য হয়ে তারা দূরবর্তী বিভিন্ন কলেজে তড়িঘড়ি করে ভর্তি হয়।

সকল নিয়ম মেনে আবেদন করলেও কি কারণে তাদের আবেদন গ্রহণযোগ্য

হয়নি সেটি প্রথমে তারা জানতে পারেনি। পরবর্তীতে তারা জানতে পারে,

কলেজ অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল্লাহ’র ব্যক্তি হিংসার কারণে আবেদনগুলো গ্রহণ

করা হয়নি। অভিযোগে তারা আরো জানায়, কলেজ অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল্লাহ

প্রকাশ্যে বলেছেন, “জাতপুর পশ্চিম পাড়া ও শেখ পাড়ার কোন ছেলে-মেয়েকে

আমার কলেজে ভর্তি করা হবে না।” কলেজের অন্যান্য শিক্ষকরা অনুরোধ করলেও

অধ্যক্ষ ব্যক্তি আক্রোশের কারণে এ ধরণের পক্ষপাত ও বৈষম্যমূলক সিদ্ধান্ত নেন।

এদিকে শুধুমাত্র কলেজ অধ্যক্ষের প্রতি হিংসার কারণে ভর্তি হতে না পারা

শিক্ষার্থী,তাদের অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যে দারুণ ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।

ভুক্তভোগিরা বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গতকাল বুধবার

কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি ও তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের

নিকট লিখিত অভিযোগ করেছেন। তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ

ফরিদ হোসেন বলেন, বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ

বিষয়ে জাতপুর টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের অধ্যক্ষ

মোঃ সাইফুল্লাহর সাথে কয়েক দফা যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে

পাওয়া যায়নি। তবে কলেজের কয়েকজন শিক্ষক জানান, তিনি হুট করে এসে

হুট করে চলে যান,উনার মোবাইল ফোনও বেশিরভাগ সময় বন্ধ থাকে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451