রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন

নাটোরে স্কুল ছাত্রকে অপহরণ ও হত্যার মামলায় একজনের ফাঁসি

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৭
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

 

নাটোর ব্যুরো অফিস:

নাটোরের হালসায় মুক্তিপনের পাঁচ লাখ টাকা না পেয়ে অপহৃত স্কুল ছাত্র

অনন্ত চক্রবর্তী অন্তুকে হত্যার মামলায় একজনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছে

আদালত। এ সময় মামলার অপর দুই আসামীকে বেকসুর খালাস দিয়েছে জেলা ও

দায়রা জজ আদালত। ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত হলেন হালসা গ্রামের আকবর আলীর

ছেলে আশরাফ আলী। খালাস প্রাপ্তরা হলেন, মহসিন আলীর ছেলে শাহজাহান

আলী ও সোলেমান আলীর ছেলে আব্দুল¬াহ আল মামুন।

মামলা সুত্রে জানা গেছে,২০১২ সালের ১ জুন সন্ধ্যায় হালসা বাজার থেকে

একই গ্রামের অশোক চক্রবর্তীর ছেলে অনন্ত চক্রবর্তী অন্তু নামে ৬ষ্ঠ

শ্রেনীর এক ছাত্রকে অপহরন করে অপহরনকারীরা। পরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ৫

লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে তারা। মুক্তিপন না পেয়ে অন্তুকে হত্যা করে

অপহরণকারীরা। পরে রাতেই পুলিশ ও র‌্যাব-৫ এর সদস্যরা হালসা গ্রামের আকবর

আলীর ছেলে আশরাফ আলী , মহসিন আলীর ছেলে শাহজাহান আলী ও সোলেমান

আলীর ছেলে আব্দুল¬াহ আল মামুনকে গ্রেফতার করে। তাদের স্বীকারোক্তি

অনুযায়ী হালসা মাদ্রাসার পাশে একটি পানের বরজের মধ্যে মাটির নিচে

থেকে ওই ছাত্রের বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় নিহতের পিতা

অশোক চক্রবর্তী বাদী হয়ে নাটোর সদর থানায় ৭ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা

মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তিন জনের নামে আদালতে চার্জশীট প্রদান

করেন। দীর্ঘ প্রায় ৫ বছর মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আজ বৃহস্পতিবার

দুপুরে নাটোরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রেজাউল করিম অভিযুক্ত

আশরাফ আলীকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেন এবং দুই জনকে

বেকসুর খালাস দেন।এই রায় ঘোষনার সময় আসামী আশরাফ আলী আদালতে

হাজির ছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451