শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১০:৫৪ পূর্বাহ্ন

তাহিরপুরে পাওনা টাকা চাওয়ায় বাড়িঘরে হামলা,ভাংচুর ও লুটপাট: মহিলাসহ আহত ১৫,গ্রেফতার ৪

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৭ মার্চ, ২০১৭
  • ১৭১ বার পড়া হয়েছে

 

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে পাওনা টাকা চাওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে

বাড়ি-ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করেছে এলাকার

সন্ত্রাসীরা। এতে মহিলাসহ ১৫জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে

আশংকাজনক অবস্থায় শাহারা বেগম (৪৫) কে সিলেট ওসমানী

মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর অন্যান্যদের

তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এঘটনার প্রেক্ষিতে সন্ত্রাসী রইছ মিয়া (৩৫),ফারুক

মিয়া(২৮),নজরুল মিয়া (২৩) ও বাচ্ছু মিয়া (৪০) কে পুলিশ

গ্রেফতার করে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টায় জেলহাজতে

পাঠিয়েছে। সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার

রাত ১০টায় উপজেলা বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদলার পাড় গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানাযায়,বাদলার পাড় গ্রামের নজরুল ইসলামের

কাছে শাড়ি-কাপড় ব্যবসায়ী সোহাগ মিয়া তার দোকানের

শাড়ি-কাপড় বিক্রির টাকা পেত। গত সোমবার বিকালে সেই পাওনা

টাকা নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে

হাতাহাতি হয়। তারই জের ধরে এদিন রাত ১০টায় নজরুল ইসলাম তার

সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে সোহাগ মিয়ার বসতবাড়িতে গিয়ে

হামলা চালিয়ে সব কিছু ভাংচুর করে নগদ ৫লক্ষ টাকাসহ মালামাল

লটুপাট করে। এসময় তাদের হামলার শিকার হয়ে গুরুতর আহত হয়

সোহাগ মিয়ার মা শাহারা বেগমসহ ১৫জন। এঘটনার প্রেক্ষিতে

ব্যবসায়ী সোহাগ মিয়া বাদী হয়ে রাতেই ৮জনকে আসামী করে

থানায় মামলা নং-৫ দায়ের করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৪

সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করে।

তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নন্দন কান্তি ধর

এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,৪জনকে জেল হাজতে পাঠানো

হয়েছে আর অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451