শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৮:০৩ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

ধর্মের নামে কোনো অপকর্ম সহ্য করা হবে না: প্রধানমন্ত্রী

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৬
  • ২১৪ বার পড়া হয়েছে

 

 

জঙ্গিবাদ দমনে সরকারের কঠোর অবস্থান অব্যাহত থাকবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ধর্মের নামে কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড সহ্য করা হবে না।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর ঢাকেশ্বরী মন্দির ও রামকৃষ্ণ মিশনে শারদীয় দুর্গোৎসব পরিদর্শনে গিয়ে এ কথা বলেন তিনি। এ সময় সব ধর্মের মানুষ যাতে সম্মান নিয়ে বাঁচতে পারে, এমন পরিবেশ সৃষ্টিতেই সরকার কাজ করছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গা পূজা উপলক্ষে জাতীয় মন্দির ঢাকেশ্বরী পরিদর্শনে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার মঙ্গলময়ী মা দুর্গার সপ্তমী তিথির বিকেলে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান সেখানকার পূজারীবৃন্দ। বেশকিছু সময় ভক্তবৃন্দকে সঙ্গে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী পরিদর্শন করেন পুরো পূজার কার্যক্রম।

পরে উপস্থিত ভক্তবৃন্দের উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে যারা সমাজে অশান্তি সৃষ্টি করছে, তাদের দমনে সরকারের সব প্রচেষ্টাই অব্যাহত থাকবে।

প্রধানমন্ত্রী জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তার সরকারের কঠোর অবস্থানের কথা জানিয়ে বলেন, ‘জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিয়েছি, নিয়ে যাচ্ছি, আগামীতেও নিয়ে যাবো। কারণ জঙ্গিবাদের স্থান বাংলাদেশের মাটিতে হবে না। ধর্মের নাম নিয়ে কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বরদাশত করা হবে না।’

তিনি আরও করেন, ‘ইসলাম শান্তির ধর্ম, সৌহার্দ্যের ধর্ম, ভ্রাতৃত্বের ধর্ম। ইসলামে জঙ্গিবাদের জায়গা নেই। যারা এসব করে তারা ধর্মবিরোধী কাজ করে।’

শেখ হাসিনা বাংলাদেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনার কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘এখানে যার যার ধর্ম সে সে স্বাধীনভাবে পালন করবে। এই পরিবেশটা আমরা নিশ্চিত করতে চাই। ধর্ম যার যার, উৎসব সবার। সকলের তরে সকলে আমরা, আমরা মানবের তরে। আসুন সবাই মিলে একসঙ্গে দেশকে গড়ে তুলি। এভাবেই আমরা দেশকে পরিচালিত করছি।’

‘আমরা সংঘাত চাই না। শান্তি চাই, সম্প্রীতি চাই। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার উন্নতি চাই। সে লক্ষ্য নিয়েই আমাদের পথচলা।’

এরপর রাজধানীর রামকৃষ্ণ মিশনে পূজামণ্ডপ পরিদর্শনে গেলে সনাতন ভক্তবৃন্দরা প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। পরিদর্শন শেষে সেখানে উপস্থিত পূজারীদের উদ্দেশেও বক্তব্য রাখেন তিনি। তিনি বলেন, বাংলার মাটিতে যাতে সব ধর্মের মানুষ সম্প্রীতি নিয়ে বাঁচতে পারে সেই পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যেই কাজ করছে সরকার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ধর্ম যার যার উৎসব সবার। এই দেশে সব ধর্মের মানুষই যাতে সম্মানের সঙ্গে বাঁচতে পারে সে লক্ষ্যেই কাজ করছে সরকার।

দেশের সমৃদ্ধি আর উন্নয়ন কামনায় সবাইকে প্রার্থনার আহ্বানও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকের দিন থেকে এ দেশের প্রতিটি ধর্মের প্রতিটি উৎসব সবাই উদযাপন করবে। ধর্ম যার যার, উৎসব আমাদের সবার।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451