শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৭:৩০ অপরাহ্ন

হিলারির ইতিহাস

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৯ জুন, ২০১৬
  • ২১১ বার পড়া হয়েছে

ইংরেজিতে একটি কথা প্রচলিত আছে যে, মর্নিং শোজ দ্য ডে। অর্থাৎ সকাল দেখে বলে দেয়া যায় দিনটি কেমন যাবে। ১লা ফেব্রুয়ারি আইওয়া ককাসে বিজয় অর্জনের মধ্য দিয়ে হিলারি ক্লিনটন সেটাই প্রমাণ করে দিয়েছেন। তারপর থেকে আগামী ৮ই নভেম্বর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মনোনয়ন লড়াইয়ে তিনি একের পর এক রাজ্যে বিজয় অর্জন করে দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বী ভারমন্টের সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্সকে অনেক পিছনে ফেলে দেন। আর গত মঙ্গলবার তিনি ‘সিল’ করে দিলেন বার্নি স্যান্ডার্সের স্বপ্ন। এদিন ৬টি রাজ্যে অনুষ্ঠিত হয় প্রাইমারি নির্বাচন। তার মধ্যে এখনও সবগুলোর ফল প্রকাশিত হয়নি। তবে নিউ জার্সিতে হিলারি বিজয়ী হয়েছেন। আর এর মধ্য দিয়ে তিনি তার লক্ষ্যে পৌঁছে গেছেন। ফলে বাঁধ ভাঙা উল্লাস তার শিবিরে। নিউ ইয়র্কে দলীয় প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে সেই উল্লাসের মধ্যে দাঁড়িয়ে হিলারি এ ঐতিহাসিক বিজয়ে নারীদের প্রশংসা করলেন। বলছেন, আপনাদের ধন্যবাদ। আমরা মাইলফলকে পৌঁছে গেছি। এ বিজয় নারী ও পুরুষদের প্রাপ্য, যারা এই মুহূর্তটিকে সফল করতে সংগ্রাম করেছেন, আত্মত্যাগ করেছেন। নিউ জার্সিতে বিজয় অর্জনের পর তিনি টুইটে বলেছেন, প্রতিটি বালিকা, যারা ছোট তারা বড় স্বপ্ন দেখতে পারে। হ্যাঁ, তোমরা যা চাও তাই করে দেখাতে পারো। এমনকি একজন প্রেসিডেন্টও হতে পার। আজকের রাতটি শুধু তোমাদের।
তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম একজন নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হচ্ছেন। এ খবরে সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। তাই নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজ পত্রিকা তার প্রথম পৃষ্ঠা পাল্টে ফেলেছে। তার পূর্ণপৃষ্ঠায় হিলারির দু’বাহু প্রসারিত করা একটি ছবি প্রকাশ করা হয়েছে প্রথম পৃষ্ঠায়। ইংরেজিতে উপরে লেখা ‘হার!’। নিচে লেখা ‘ক্লিনটন মেকস হিস্টরি অ্যাজ ফার্স্ট ফিমেল প্রেসিডেন্ট নমিনি’। হিলারি নিজেও প্রথমবারের মতো পৃষ্ঠা ৯ কলাম ৪
ইতিহাসে একটি বড় রাজনৈতিক দল থেকে একজন নারীকে বেছে নেয়ার প্রশংসা করেছেন। মঙ্গলবার নিউ জার্সিতে হিলারি বিজয়ী হওয়ার পর হিলারি ক্লিনটন ও বার্নি স্যান্ডার্সকে ওইদিন রাতেই হোয়াইট হাউসে
আমন্ত্রণ জানান। এ সময় ডেমোক্রেটিক দল থেকে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রশংসা করেন তিনি। এ ছাড়া বৃহস্পতিবার নির্বাচনী মূল বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনার জন্য বার্নি স্যান্ডার্সকে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ওবামা।
ওদিকে বার্নি স্যান্ডার্স এখনও স্বপ্ন দেখছেন আগামী জুলাইয়ে দলীয় কনভেনশনে হিলারির পরিবর্তে সুপার ডেলিগেটরা তাকেই সমর্থন দেবেন। তবে রাজনৈতিক ভাষ্যকাররা বলছেন, মনোনয়ন দৌড়ে সফল হবেন না ভারমন্টের এই সিনেটর। মঙ্গলবার ডেমোক্রেট দলের ৬টি রাজ্যে প্রাইমারি নির্বাচন হয়। এগুলো হলো ক্যালিফোর্নিয়া, মন্টানা, নিউ জার্সি, নিউ মেক্সিকো, নর্থ ডাকোটা, সাউথ ডাকোটা। এর মধ্যে নিউ জার্সি, নিউ মেক্সিকো ও সাউথ ডাকোটাতে বিজয়ী হয়েছেন হিলারি ক্লিনটন। নর্থ ডাকোটায় বিজয় পেয়েছেন বার্নি স্যান্ডার্স। এখনও ফল প্রকাশ হয়নি ক্যালিফোর্নিয়া ও মন্টানার। এরই মধ্যে হিলারি ক্লিনটন অর্জন করেছেন ২৪৮৪টি ডেলিগেট। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য তার প্রয়োজন ছিল ২৩৮৩টি ডেলিগেট। অন্যদিকে বার্নি স্যান্ডার্স পেয়েছেন ১৬৫০ টি ডেলিগেট।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451