রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৯:২৫ অপরাহ্ন

মা ভবানীর পূণ্য ভুমি দর্শন করলো তীর্থ দর্শন সংগঠন

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৬ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৮৩ বার পড়া হয়েছে

সোহেল রানা সোহাগ,সিরাজগঞ্জ থেকেঃ
সািরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার নওগাঁ বাজার তীর্থ দর্শন সংগঠনের পক্ষ থেকে মা ভবানীর পূণ্যভুমি দর্শন করলেন সংগঠনের সকল সদস্য ও তাদের পরিবার। তীর্থ দর্শন সংগঠনের সকল সদস্যদের এটিই ১ম বার্ষিকী তীর্থস্থান দর্শন। এই সংগঠনের সকলের উদ্দেশ্য সুদ মুক্ত টাকা দিয়ে দেশ বিদেশের সকল তীর্থ স্থান দর্শন করা। নিজেদের পরিশ্রম করা টাকা দিয়ে বছরে তারা একটি করে হলেও দর্শনীয় মন্দিরমন্দির বা তীর্থ স্থান দর্শন করবে। শুধু তারা জেনেই সীমাবদ্ধ থাকবে না তারা তাদের পরবর্তী প্রজন্মকে সেগুলো সম্পর্কে জানাবে।হিন্দু ধর্ম সম্পর্কে অনেকেই ততটা অবগত নহে তাদের মাঝে সঠিক দিক তুলে ধরাই হবে তাদের কাজ। এই সংগঠনের সভাপতি বিদ্যুৎ কুমার সরকার জানান,যে এই সংগঠন করা মুল উদ্দেশ্য আমরা আশে পাশের সকল সনাতন ধর্মাবলম্বীরা একত্রিত হয়ে সনাতন ধর্ম সম্পর্কে জানার চেষ্টা করবে। আর যারা কিছুই জানে না তাদের বোঝানোর চেষ্টা করবো বা জানানোর চেষ্টা করবো। এই সংগঠনের অন্যতম সদস্য প্রদীপ কর্মকার জানান, যে প্রতিটি হিন্দু ব্যক্তির তাদের হিন্দু ধর্ম সম্পর্কে ঞ্জান থাকা প্রয়োজন। জীব জগতে জন্ম গ্রহন করলে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ৩ টি স্থান দর্শনে যেতে হয়। তাহলো ভবে আসলে ভবানী তে স্নান, ক্ষেতুর ধামে স্নান এবং শ্রীকৃষ্ণের লীলার স্থল বিন্দাবন ধামে যাওয়া সকল হিন্দুর দরকার। আর তাদের প্রথম লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য মা ভবানীর পূণ্য ভুমিতে গিয়ে স্নান করার মধ্য দিয়ে তাদের সংগঠন তীর্থ দর্শনের যাত্রা শুরু করা। সংগঠনের সদস্য ও তাদের পরিবারের সদস্যরা সহ মোট ৫০ জন তীর্থ স্থান মা ভবানীর পূণ্য ভুমিতে গিয়ে স্নানে অংশ গ্রহন করে। স্নান শেষে তারা প্রসাদ রান্না করে মা  ভবানীর পুণ্য ভুমিতে আগত ভক্তদের মাঝে প্রসাদ বিতরন শেষে তারা প্রসাদ গ্রহন করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451