বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন

প্রশ্ন হলো- কোথায় যাচ্ছেন মেসি?

অনলাইন ডেস্কঃ
  • আপডেট টাইম বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০
  • ১২ বার পড়া হয়েছে

বার্সেলোনা ছাড়ছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা লিওনেল মেসি। একটি বিশেষ বার্তায় এই ৩৩ বছর বয়সী অনুরোধ জানিয়েছেন দ্রুত তাকে ফ্রি ট্রান্সফারে ছেড়ে দিতে। ঠিক ১০ দিন আগে বার্সেলোনা, ইউরোপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের সাথে ৮-২ ব্যবধানে একটি ম্যাচ হারে, যেই ম্যাচে খেলেছেন লিওনেল মেসি। এই ম্যাচটির পরপরই দ্রুত কোচ বদল করে বার্সেলোনা। কুইক সেতিয়েনের জায়গায় নিয়ে আসা হয় রোনাল্ড কোম্যানকে।

লিওনেল মেসি ছয়বার ব্যালন ডি’ অর জিতেছেন। কাতালান ক্লাব বার্সলোনার সাথে মেসির চুক্তি আছে ২০২১ সাল পর্যন্ত, মেসির ‘বাই আউট ক্লজ’ ৭০০ মিলিয়ন ইউরো। বাই আউট ক্লজ হচ্ছে চুক্তির মেয়াদ থাকাকালীন একটি ট্রান্সফারের ভিত্তি মূল্য।

তবে বার্সেলোনার বোর্ড আরো একবার বসতে চায়, তারা মেসিকে ক্লাবে রাখতে চায়। কিন্তু সেজন্য একটা পথই খোলা, বার্সেলোনার বর্তমান প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তেমোর পদত্যাগ। কিন্তু মেসি তার সিদ্ধান্তে অনড় থাকছেন বলেই মনে করেন স্প্যানিশ ফুটবল লেখক গিলেম বালাগ।

মেসির চুক্তিতে একটি ধারা আছে যেখানে বলা আছে যদি তিনি চান তবে তাকে ফ্রিতে ছেড়ে দেয়া হবে, তবে সেটা ১০ই জুনের মধ্যে জানানো প্রয়োজন। সেই তারিখ পার হয়ে গেছে এখন, কিন্তু মেসি ও তাঁর সহযোগীরা মনে করেন করোনাভাইরাসের কারণে যেহেতু পুরো মৌসুমই পিছিয়েছে তাই ধারায় উল্লেখিত এই তারিখও বদল হওয়া দরকার।

গতকাল এই ঘোষণা আসার পরপরই বার্সেলোনার মাঠ ন্যু কাম্পে জড়ো হয় বার্সেলোনার ভক্তরা। বোর্ডের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন তারা। লিওনেল মেসি ক্লাবটির ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা। ২০০৯ ও ২০১১ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে গোল আছে মেসির। মেসির সাবেক ক্লাব সতীর্থ পুওল ইতোমধ্যে মেসিকে সাধুবাদ ও সম্মান জানিয়ে টুইট করেছেন, যেখানে তালির ইমোজি দিয়েছেন বর্তমান ক্লাব সতীর্থ লুইস সুয়ারেজ।

প্রশ্ন হচ্ছে, মেসি যাবেন কোথায়?
আর্জেন্টিনার এই মহাতারকাকে দলে নিতে বিশ্বের যেকোনো ক্লাব আগ্রহী থাকবে। কিন্তু এবারে বিষয়টা জটিল, ক্লাবের আনুষ্ঠানিক প্যাডে মেসির সই নিতে আসলে খুব অল্প ক্লাবই প্রস্তুত। তাদের মধ্যে একটা ম্যানচেস্টার সিটি। বলার অপেক্ষা রাখে না মেসি তার ক্লাব ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা কাটিয়েছেন পেপ গার্দিওলার অধীনেই। মেসির দুই প্রিয় বন্ধুর একজন সার্জিও অ্যাগুয়েরো বহু বছর ধরে খেলছেন ম্যানচেস্টার সিটিতে, ক্লাবটির ইতিহাসের সফলতম ফুটবলার তিনি। আরেক প্রিয় বন্ধু সেস ফ্যাব্রেগাস ইংলিশ ফুটবলে খেলেছেন বহুদিন। তাই প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে মেসির উচ্চ ধারণা আছে। এবং যেসব ক্লাব মেসির আকাশচুম্বী বেতন দিতে সক্ষম তার একটি ম্যানচেস্টার সিটি।

ওদিকে, মঙ্গলবার একটি জাতীয় টেলিভিশনে খবর আসে ইংলিশ ফুটবলের সফলতম ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও মেসির দিকে হাত বাড়াবে। সম্প্রতি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ট্রান্সফার মার্কেটে ভুল করছে একের পর এক। ভক্তরা এখন ইউনাইটেডের বর্তমান মালিক গ্ল্যাজার পরিবারের ওপর ক্ষুব্ধ। এটা এমনই এক পরিস্থিতি নিজের ভাবমূর্তি রক্ষা করতে মেসির শরণাপন্ন হতেই পারে এই বিপুল অর্থের মালিক পরিবার।

তবে আরো একটা বিষয় এখানে বিবেচনায় আসবে সেটা জীবনযাপন নিয়ে, মেসির পরিবার ইংল্যান্ডে মানিয়ে নিতে কতটা পারবেন আর মেসির বাচ্চারা? তবে মেসির বাচ্চারা এখনই বার্সেলোনায় একটি ব্রিটিশ স্কুলে পড়ালেখা করছে। ইংল্যান্ডের বাইরে সবচেয়ে বেশি শোনা যাচ্ছে প্যারিসের নাম। এবার ইউরোপীয়ান ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতায় রানার আপ হয়েছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই। তাদের আছে অর্থ, জৌলুস এবং মেসিকে দলে নিলে আবারো মেসি ও নেইমারের জুগলবন্দী দেখতে পারে ফুটবল বিশ্ব।

তবে লিওনেল মেসির জন্য সবচেয়ে রোমান্টিক হবে যদি সে তার ছোটবেলার ক্লাব নিউয়েল ওল্ড বয়েজে যান। আর্জেন্টিনার রোজারিওর এই ক্লাবেই মেসি শৈশবে বলের সাথে বন্ধুত্ব করেন। শেষ অপশন হবে পারে মেসি আসবেন এশিয়াতে, মেসির সাবেক দুই সতীর্থ জাভি ও ইনিয়েস্তা এখন এশিয়াতেই ফুটবল নিয়ে সময় কাটাচ্ছেন। জাভি কাতারে কোচের দায়িত্বে আছেন, ইনিয়েস্তা জাপানে।

তবে এসব ভাবনা ছেড়ে দেয়াই ভালো। মেসি এখনো সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলার মতো অবস্থায় আছেন, আরো একটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার চেষ্টা তিনি করতেই পারেন। বার্সেলোনার সাথে যেটা গত পাঁচ বছরে হয়নি, সেটা অন্য কারো সাথে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম উত্তাল
মেসি বার্সেলোনা ছাড়ছেন বা ছাড়ার অনুরোধ করেছেন, তাতে মেসি ভক্তরা এখনো হতবাক।

গতরাতে এই সংবাদ যখন টুইটারে ছড়িয়ে পড়ে বাংলাদেশে তার ভক্তরা বেশ বিমর্ষ হয়ে লেখেন যে এমন সংবাদ কখনো পাওয়া যাবে ভাবেননি। আবার অনেকে এখনো আশাবাদী মেসি বার্সেলোনাতেই থাকবেন, এর কোনো ব্যতিক্রম হবে না। তবে আন্তর্জাতিক ফুটবল অঙ্গনে মেসির ক্লাব ছাড়া নিয়ে মজাও করা হচ্ছে। রিও ফার্দিনান্ড তার সাবেক ইংল্যান্ড সতীর্থ ফ্রাঙ্ক ল্যাম্পার্ডকে নিয়ে টিপ্পনী কেটেছেন। অনেক ক্লাব তাদের টুইটারে মেসিকে নিজের দলে ভেড়াতে জার্সিতে মেসির ছবি ফটোশপ করে বসাচ্ছেন।

আবার সাবেক ইংলিশ স্ট্রাইকার পিটার ক্রাউচ বলছেন, মেসি যদি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আসেন আর গ্যালারি এমন ফাঁকা থাকে তার চেয়ে কষ্টের আর কিছু হবে না।

বার্সেলোনায় মেসি যা করেছেন
লা লিগার ইতিহাসে সর্বোচ্চ গোলদাতা মেসি- ৪৪৪

বিশ্বে সবচেয়ে বেশিবার ব্যালন ডি’অর ও ফিফা বর্ষসেরার পুরষ্কার মেসির- ছয়বার

একটি ক্যালেন্ডার বছরে সর্বোচ্চ গোল মেসির- ৭৯টি ২০১২ সালে

একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে টানা ১০ বছর ৪০টি বা তার বেশি গোল করেন মেসি একটি ক্লাবের হয়ে
সর্বোচ্চ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ গোল মেসির- ১১৫।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 banglarprotidin
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451