সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:১৭ পূর্বাহ্ন

গুরুদাসপুরে কোরবানীর গরু-ছাগল ক্রেতা বিক্রেতাদের মিলনমেলা

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ১০৫ বার পড়া হয়েছে

 

 

মো. আখলাকুজ্জামান, গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.

পবিত্র ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে উত্তর জনপদের অন্যতম বাণিজ্য নগরী নাটোরের গুরুদাসপুর পৌরসদরের

চাঁচকৈড় হাটে মঙ্গলবার সকাল থেকে সারাদিন ব্যাপী হাজার হাজার কোরবানীর গরু, ছাগল আর ক্রেতা

বিক্রেতাদের ভীড়ে জমে উঠেছে মিলনমেলা।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, চাঁচকৈড় গরু হাটা ছাড়াও নন্দকুজা ব্রীজ পার হয়ে খলিফাপাড়া পর্যন্ত

ছড়িয়ে পড়েছে ওই কোরবানীর হাট। গরু আমদানীর আধিক্যে হাটের অন্যান্য কেনাবেচা ব্যাহত হচ্ছে

অনিবার্যভাবে। সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থেকে আগত আব্দুল আজিজ নামের এক ক্রেতা জানান, প্রতিবারের

তুলনায় এবারে কোরবানীর গরুর দাম অনেক বেশি। কিছু গরু দেড় লাখ থেকে পৌনে দুই লাখ টাকায় বিক্রি

হচ্ছে। খলিফাপাড়ার আনিছুর রহমান নামের জনৈক বিক্রেতা জানান, এখানে মনের মতো দাম না পেয়ে আমি

গরু নিয়ে যাচ্ছি ময়মনসিংহে। হাট ঘুরে প্রতিয়মান হয়, নি¤েœ ৩০ হাজার এবং সর্বোচ্চ পৌনে ২

লাখ টাকা মূল্যে কোরবানীর গরু বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে ছাগল হাটায় দেখা যায়, ছাগল আর ক্রেতা বিক্রেতাদের ভীড়ে ওই হাটে প্রবেশ করাই দুরুহ ব্যাপার

হয়ে পড়েছে। সেখানে যেন কোরবানীর ছাগল কেনার প্রতিযোগিতা চলছে। ছাগল ক্রেতা আলাল উদ্দিন

জানান, সর্বোচ্চ ৩৫ থেকে ৪০ হাজার টাকা মুল্যের ছাগলও এ হাটে আমদানী হয়েছে। দূর দূরান্ত থেকে

আসা ক্রেতারা ছাগলের মূল্যের দিকে না তাকিয়ে কোরবানী দিতে হবে তাই বড় ছাগলগুলো বেশি কিনছেন।

অবশ্য ছাগল হাটায় ৫ হাজার টাকা মূল্যের ছাগলেরও আমদানী হয়েছে। তবে বড় ছাগলের সংখ্যা পূর্বের চেয়ে

অনেক বেশি হলেও মূল্য তেমন চড়া নয়।

এ ব্যাপারে হাট ইজারাদার মো. শাহানুর মোল্লা জানান, অধিকাংশ ক্রেতা দূর দূরান্ত থেকে আসায় তাদের

সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। আগামী মঙ্গলবারের হাটের দিন ঈদুল আযহার দিন হওয়ায় বিশেষ

বিবেচনায় হাট কমিটি শনিবারেও এখানে গরু-ছাগলের হাট বসাবে বলে মাইকিং করে ঘোষণা

দিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451