শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০১:৪১ অপরাহ্ন

বল হাতেও দৈন্যদশা সাকিবদের

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৫ জুলাই, ২০১৮
  • ২৫০ বার পড়া হয়েছে

স্পোর্টস ডেস্কঃ 

উইন্ডিজ সফরে গিয়ে রীতিমতো নাজেহাল দশা বাংলাদেশের। প্রথম টেস্টে ব্যাট হাতে বাংলাদেশ গড়েছে লজ্জাজনক এক রেকর্ড। অলআউট হয়ে গেছে মাত্র ৪৩ রানে। এটাই টেস্টে বাংলাদেশের সর্বনিম্ন স্কোরের নতুন রেকর্ড। এরপর বল হাতেও দৈন্যতা দেখাচ্ছেন সাকিব আল হাসানরা। প্রথম দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশ ফেলতে পেরেছে উইন্ডিজের দুটি উইকেট। অন্যদিকে স্বাগতিকদের স্কোরবোর্ডে জমা হয়েছে ২০১ রান।

প্রথম উইকেটের দেখা পেতে বাংলাদেশকে অপেক্ষা করতে হয় ৪১তম ওভার পর্যন্ত। ততক্ষণে ১১৩ রানের উদ্বোধনী জুটি দাঁড়িয়ে গেছে উইন্ডিজের। বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্যটি এনে দেন অভিষিক্ত পেসার আবু জায়েদ। ৫৮ রান করে সাজঘরে ফেরেন ডেভন স্মিথ। এরপর আবারও আরেকটি সাফল্য পেতে অপেক্ষা করতে হয় ২৪টি ওভার। ৬৫তম ওভারে ৪৮ রান করা কায়রন পোলার্ডকে আউট করেন মাহমুদউল্লাহ। দিনের বাকি চারটি ওভার নির্বিঘ্নেই কাটিয়ে দিয়েছেন ওপেনার ক্রেইগ ব্রেথওয়েট ও দেবেন্দ্র বিশু। ৮৮ রান নিয়ে অপরাজিত থেকে শতকের পথে এগিয়ে যাচ্ছেন ব্রেথওয়েট। আর ১ রান করে অপরাজিত আছেন বিশু।

এর আগে শুরুতেই নতুন লজ্জার রেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। ৪৩ রানে অলআউট হওয়াটাই এখন টেস্টে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্কোর হিসেবে লেখা হবে। এর আগে যেটি ছিল ৬২ রানের। ২০০৭ সালে শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়ে সেই রেকর্ডটি করেছিল বাংলাদেশ।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ৯ ওভারের মধ্যেই পাচটি উইকেট হারিয়ে ভয়াবহ বিপদের মুখে পড়েন সাকিবরা। প্রথম চার ওভার ভালোভাবে কাটিয়ে দিতে পারলেও পঞ্চম ওভারেই ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল ফেরেন কেমার রোচের শিকার হয়ে। নিজের পরের ওভারে মুমিনুল হকের উইকেটও তুলে নেন ডানহাতি এই পেসার। এরপর বাংলাদেশ খায় আরো বড় ধাক্কা। কেমার রোচের পঞ্চম ও ইনিংসের নবম ওভারে একে একে সাজঘরের পথে হাঁটেন বাংলাদেশের প্রধান তিন ব্যাটিং স্তম্ভ মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ। তিনজনই আউট হয়েছেন রানের খাতা না খুলেই।

তামিমের উদ্বোধনী সঙ্গী হিসেবে ব্যাট করতে নেমে উইকেটের অপর প্রান্তে দাঁড়িয়ে হতাশা নিয়ে সতীর্থদের এই আসা যাওয়া দেখতে হচ্ছে লিটন দাসকে। তিনি একাই প্রায় দাঁড়িয়েছিলেন ধ্বংসস্তুপের মধ্যে। শেষপর্যন্ত তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ২৫ রান। বলাই বাহুল্য, অন্য কোনো ব্যাটসম্যানই পেরোতে পারেননি দুই অঙ্কের কোটা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ, ৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন রুবেল হোসেন। শূন্য রানে আউট হয়েছেন চারজন।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451