রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন

আর্জেন্টিনার জার্সি শেষ বিদায়েও পরনে ছিল!

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ১ জুলাই, ২০১৮
  • ২২০ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্কঃ 

শেষ বিদায়েও পরনে ছিল প্রিয় দলের জার্সি। প্রিয় দল নিয়ে মাতামাতিরও কমতি ছিল না তাঁর। খেলা শুরুর আগে বলেছিলেন, আজ তাঁর প্রিয় দল জিতবেই। কিন্তু প্রিয় দল জিততে পারেনি। বরং বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ায় অভিমানে গলায় মায়ের শাড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন।

গতকাল শনিবার গভীর রাতে ঢাকার ধামরাই উপজেলায় এই ঘটনা ঘটে। নিহত তরুণের নাম সুজন সরকার ওরফে গণেশ (২৩)। তিনি ধামরাইয়ের সাইট্রা গ্রামের নারায়ণ সরকারের ছেলে।

সুজন সরকার সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ট্রান্সফিউশন মেডিসিন (ব্ল্যাড ব্যাংকের) বিভাগের প্যাথলজি সহকারী ছিলেন।

নিহতের ভাই এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের টেকনোলজিস্ট কার্তিক চন্দ্র সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ভাই খেলা শেষে অত্যন্ত মর্মাহত ছিলেন। তবে তিনি যে এমন কাণ্ড ঘটিয়ে ফেলবেন তা কল্পনাও করতে পারিনি।

ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রিজাউল হক দীপু বলেন, ‘বিষয়টি জানার পর আমরা সুজনের বাড়িতে পুলিশ পাঠাই। সেখানে পরিবারের সদস্য ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি, তিনি আর্জেন্টিনার পরাজয়ের শোক সইতে না পেরে আত্মহত্যা করেছেন।’

এদিকে এ ব্যাপারে ওসি নিজেই তাঁর ফেসবুক পেজে সুজনের ছবি দিয়ে আর্জেন্টিনার পরাজয়ে তাঁর আত্মহত্যার বিষয়ে একটি পোস্ট দেন। যেখানে ‘প্রিয় দলের জন্য স্বেচ্ছায় আত্মহনন’ শিরোনামে তিনি লিখেন, প্রিয় দল আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ আসর থেকে বিদায় নেওয়ায়, এই ভক্ত সিদ্ধান্ত নেন তিনিও পৃথিবীর থেকে বিদায় নেবেন। তাই তিনি বীরের বেশে মায়ের শাড়ি পেঁচিয়ে, মাত্র দেড় মাস আগে বিবাহিত নববধূকে টাটা বাইবাই জানিয়ে আত্ম্যহত্যা করেন এই বীর। সকল অভিভাবকদের সতর্ক হওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হলো। ব্রাজিলের জন্য কোনো বীর যেন আত্মহত্যা না করে।

 

এন/টি

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451