রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

ভিজিএফ’র চাল পেলনা ভিখারীরা!

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ১০ জুলাই, ২০১৬
  • ১৬০ বার পড়া হয়েছে

মো.আখলাকুজ্জামান, গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার মশিন্দা ইউপির সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর

ঘোড়া মার্কা প্রতিকে ভোট দেয়ার অপরাধে ঈদ উপলক্ষে বিতরিত ভিজিএফ’র চাল ভিখারীরাও না পাওয়ার

অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করেন

মো. মোস্তাফিজুর রহমান। অপরদিকে ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি আব্দুল বারী দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত

হয়ে দলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে ঘোড়া প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে

যান। স্থানীয়রা বলেন- ঈদ-উল- ফিতরে মশিন্দা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ভিজিএফ’র চাল বিতরনের ক্ষেত্রে ঘোড়া

প্রতিকে যারা ভোট দিয়েছেন তাদেরকে ভিজিএফ’র চাল দেয়া হয়নি।

মশিন্দার চরপাড়ার হতদরিদ্র ভিখারী রিয়াজ ফকির বলেন- কত মানুষকে চাল দিলো চিয়ারমেন কিন্তু আমাগারে

দিলোনা। এমনি ভাবে চরপাড়ার অসহায় ঝিলাপি বেগম, হতদরিদ্র রুহুল আমিন, দিনভিখারী জানু, নারী

শ্রমিক সাহেরা, মমেনা, নুরনাহার এবং আব্দুস সাত্তার, বকুল প্রমূখ একই অভিযোগ উপস্থাপন করেন এ

প্রতিনিধির কাছে। চরপাড়ার মৃত হারান মোল্লার ছেলে আতাহার আলী বলেন, অনেক কষ্টে চাল পেয়েছি।

তবে তা ২০ কেজির পরিবর্তে পেয়েছি সাড়ে ১৪ কেজি।

১ নং ওয়ার্ডের মেম্বার সেলিম জাহাঙ্গীর স্বপন মুঠোফোনে জানান, খয়রাতি চালের সকল লিষ্ট চেয়ারম্যান

তার  নিকটতম পোষ্য মোশারফ ও আলালকে দিয়ে করিয়েছেন। আমার জানা মতে চাল বিতরনে অনেকটাই

অনিয়ম হয়েছে। অনেক বাড়ীতে ৪/৫ জন যেমন জব্বার শাহর বাড়ীতে ৪জন, আরশেদ আলীর বড়ীতে ৫ জনকে

দেয়া হয়েছে। শুধু এ ওয়ার্ডে নয় সকল ওয়ার্ডেই এমন ঘটনা ঘটেছে। এ অনিয়ম না হলে ওই সকল

অসহায় মানুষ গুলো ঈদে চাল পেত।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, যারা এ ধরনের কথা

বলেছে তারা নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচন করেছে। স্বপন মেম্বার বিএনপি দল করেন। সে আমার ও  আমার দলের

বিরুদ্ধে কথা বলবেই। তাছাড়া স্বপন মেম্বার ও মহিলা মেম্বার স্বাক্ষরিত লিষ্ট অনুযায়ী এসব চাল বিতরন করা

হয়েছে। অতিতের থেকে এবার ঈদে খুব সুন্দর তালিকা হয়েছে। তবে কিছু ত্র“টি থাকতেই পারে। ভোট

এখানে মুখ্য নয়।

যোগাযোগ করা হলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াসমিন আক্তার বলেন, বিষয়টা আমার জানা নেই।

তবে বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451