শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:৩০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

রাউধা হত্যায় আসামি কাশ্মীরকন্যা সিরাত

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় সোমবার, ১০ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৮৭ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহী ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের ছাত্রী রাউধা আতিফকে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ এনে তার বান্ধবী মোসা. সিরাত পারভীন আহম্মদকে আসামি করে আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নিহতের বাবা ডা. মোহাম্মদ আতিফ। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে রাজশাহী মহানগর মুখ্য হাকিম আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলার আসামি মোসা.সিরাত পারভীন ওই মেডিকেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। তার বাড়ি কাশ্মীরে।

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাউধার বাবার আইনজীবী অ্যাডভোকেট কামরুল মনির।

তিনি বলেন, আদালতের বিচারক সাইফুল ইসলাম মামলাটি আমলে নিয়ে এজাহার হিসেবে রেকর্ড করার জন্য শাহ মখদুম থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

অপরদিকে, মামলা দায়েরের পর আদালত চত্বরে রাউধা আতিফের বাবা ডা. মোহাম্মদ আতিফ সাংবাদিকদের বলেন, এটা নিশ্চিত একটা হত্যাকাণ্ড। তার গলায় হাতের ছাপ আছে। ফলে এটাকে হত্যাকাণ্ড বলে মনে হয়েছে। যে হত্যা করেছে সে ডান হাতি এবং রাউধাকে শ্বাসরোধ করেই হত্যা করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যদি রাউধা আত্মহত্যা করে থাকে তাহলে কেন পুলিশ আসার আগে তাকে নামানো হলো? আর প্রাথমিক অবস্থায় হাসপাতালের ভেতরের রুম দেখে মনে হয়েছে, এটা হত্যাকাণ্ড।

এই মামলার তদন্ত পুলিশ গুরুত্ব সহকারে করবে বলে প্রত্যাশা করেন ডা. মোহাম্মদ আতিফ।

এর আগে গত ৬ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে মালদ্বীপের দুই পুলিশ কর্মকর্তার সঙ্গে রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজে যান রাউধার বাবা। দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত সেখানে অবস্থান করেন এবং কলেজ কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে বের হওয়ার সময় সাংবাদিকদের বলেন, মেয়ের মৃত্যুর প্রকৃত রহস্য জানতে আইনের আশ্রয় নিয়ে মামলা করবেন তিনি।

গত ২৯ মার্চ রাজশাহীর ইসলামী ব্যাংক মেডিকেল কলেজের ছাত্রী হোস্টেলে নিজের কক্ষে রাউধা আতিফের লাশ পাওয়া যায়। এরপর ৩১ মার্চ তার পরিবারের সম্মতিতে ময়নাতদন্ত শেষে ১ এপ্রিল নগরীর হেতেমখাঁ কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

রাউধা এমবিবিএস ১৩তম ব্যাচের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। মালদ্বীপের এই সাগরকন্যা বিদেশি কোটায় ভর্তির পর গত বছরের ১৪ জানুয়ারি মহিলা হোস্টেলের দ্বিতীয় তলার ২০৯ নং কক্ষে উঠেছিলেন।

মডেল তারকা রাউধা আতিফের মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক মনসুর রহমানকে প্রধান করে তিন সদস্যের টিম গঠন করা হয়। ময়নাতদন্তের প্রাথমিক প্রতিবেদনে রাউধা আত্মহত্যা করেছে বলে উল্লেখ করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451