সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন

তাহিরপুরে দশ পরিবার কে একঘরে রাখার অভিযোগ আ,লীগ নেতার বিরোদ্ধে

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বুধবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৬
  • ৪২০ বার পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বালিজুরি ইউনিয়নের দশ পরিবার কে এক ঘরে রাখার অভিযোগ উঠেছে ইউনিয়ন আ,লীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যানের বিরোদ্ধে। দশ পরিবার কে এক ঘরে রাখায় গত ০৩সেপ্টেম্ভর সোমবার উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা কাছে একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউনিয়ন আ,লীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমান। জানাযায়,বালিজুরী ইউনিয়ন আ,লীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমানের ভাগনা সাইদুলের সাথে নয়াহাটি গ্রামের জিল্লুর রহমানের চাচাত ভাই আজিজুর রহমানের সাথে নির্বাচন পরবর্তি বিরোধ দেখা দেয়। এরেই জের ধরে গত ১৭সেপ্টেম্বর উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে সংর্ঘষ হয়। এতে আতাউর রহমান ও জিল্লুর রহমানের লোকজন বেশ কয়েকজন গুরুত্বর আহত হয়। গুরুত্বর আহতদের মধ্যে জিল্লুর রহমানের পক্ষের গুরুত্বর আহত ৩জন কে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এখোনও তারা চিকিৎসাধীন আছে। পরে ১৮তারিখ আতাউর রহমানের পক্ষে আব্দুল কাহার বাদী তাহিরপুর থানায় মামলা মামলা দায়ের করে। পরে এই সংঘর্ষের ঘটনায় ১৯সেপ্টেম্ভর জিল্লুর রহমান বাদী হয়ে আতাউর রহমানের পক্ষের ১৪জন কে আসামী করে তাহিরপুর থানায় মামলা দাযের করে। মামলা দাযের করার কারনেই আতাউর রহমান গ্রাম্য বিচার শালিশ বসিয়ে জিল্লুর রহমানের পক্ষের ১০পরিবার কে এক ঘরে করে রাখে। অভিযোগকারী জিল্লুর রহমান বলেন,আমি অসহার মানুষ বিনা করনে আমার ও আমার আতœীয় স্বজনদের মিলে দশটি পরিবার কে এক ঘরে করে রেখেছে। আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে জীবনের নিরাপ্তÍাহীনতার ভুগছি। ছেলে মেয়েরা স্কুলে যেতে আর হাট বাজার করতে পারছি না। এই বিষয়ে আনইশৃংখলা বাহিনীর হস্থক্ষেপ কামনা করছি। এ ব্যাপারে বালিজুরী ইউনিয়ন আ,লীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আতাউর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,দশ পরিবার কে এক ঘরে রাখার বিষয়ে আমি কিছুই জানি না,বিচার-শালিশে আমি ছিলাম না আমাকে অযথা জরানো হয়েছে আর আমার বিরোদ্ধে অভিযোগ দিচ্ছে মন গড়া। বালিজুরী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়াম্যান আব্দুর জহুর জানান,দশ পরিবার কে এক ঘরে রাখার বিষয়টি আমি জানতে পেরেছি। এবিষয়ে প্রশাসনের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব। তাহিরপুর উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) রফিকুল ইসলাম জানান,বালিজুরী ইউনিয়নে দশ পরিবার কে এক ঘরে করে রাখা হয়েছে এমন অভিযোগ এখনোও হাতে পাই নি। পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451