শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০১:০৬ অপরাহ্ন

ঝিনাইদহে অনিয়ম আর দুর্নীতির মধ্য দিয়ে ভিজিএফ কার্ডের চাল বিতরন !

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ৯৬ বার পড়া হয়েছে

 

 
ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহে ঈদুল-উল- আযহা উপলক্ষে হত দরিদ্র ও দুঃস্থদের মাঝে ভিজিএফ

কার্ডের চাল বিতরণ নিয়ে নানা কথা উঠেছে। সঠিক ভাবে কিছু

ইউনিয়নে চাল বিতরণ করা হয়নি। ধনীরা কার্ড পেয়েছে এমন অভিযোগ

পাওয়া গেছে। আবার ভিজিএফ কার্ডের চাল বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে। সদর

উপজেলার গান্না ইউনিয়নে তিনজন ব্যবসায়ী ভিজিএফ এর চাল কিনে

নছিমন যোগে নিয়ে গেছেন। সেখানে একেক জন ৫/৬টি করে কার্ড

পেয়েছে।

খবর পেয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেখানে লোক পাঠান।

কিন্তু তারা কোন অনিয়ম পান নি বলে জানা গেছে। বিভিন্ন ইউনিয়নে

দুস্থ আর হতদরিদ্রদের পরিবর্তে দীয় নেতাকর্মীদের প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে

মর্মে অভিযোগ উঠেছে।

কুমড়াবাড়িয়া ইউনিয়নে দলীয় নেতাকর্মীরা সবচে বেশি ভিজিএফ চাল

পেয়েছেন। ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ২নং মধুহাটি ইউনিয়নে ঈদুল-উল-

আযহা উপলক্ষে সারা দেশের ন্যায়, হতদরিদ্র ও দুঃস্থদের মাঝে ভিজিএফ এর চাউল

বিতরনের জন্য মধুহাটি ইউনিয়নে ২ হাজার ৩শ’ ছত্রিশ টি কার্ডের

বিপরীতে ১০ কেজি হিসেবে ৫৮৪ মন চাউল বরাদ্ধ দেয়া হয়।

এর মধ্যে ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আহম্মেদ জুয়েল সংরক্ষিত মহিলা

মেম্বরসহ ১২জন মেম্বরের নিকট বিতরনের জন্য ১১৫০ টি কাড দিয়ে দেয়।

বাকি ১১৮৬ কার্ড চেয়ারম্যান তার নিজের কাছে সংরক্ষন করে নিতান্তই

নিজের লোকদের মধ্যে বিতরণ করেন বলে অভিযোগ।

ফলে অনেকেই ৫ থেকে ১০টি করে কার্ড পেয়েছে। আবার ভিজিএফ কার্ড

ধারী দুঃস্থরা ১০ কেজি চালের পরিবর্তে ৮ কেজি করে চাউল পেয়েছেন বলে

অভিযোগ করেছেন। অনেকেই কার্ড পেয়েও চাল পাননি এমন কথাও উঠেছে।

মধুহাটি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কতিপয় নেতা এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট

উর্দ্ধোতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার আহবান

জানিয়েছেন। তবে গান্না, মধুহাটী ও কুমড়াবাড়িয়া ইউনিয়নের

চেয়ারম্যানদের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে তারা ফোন রিসিভ করেননি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451