বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৬ অপরাহ্ন

সরিষাবাড়ী বলারদিয়ার গ্রামে বাড়ছে মাদক যুব ও ছাত্র সমাজ ধ্বংসের মুখে ,

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৭ আগস্ট, ২০১৬
  • ৩০৯ বার পড়া হয়েছে

 

 

জাহিদ হাসান ঃ      সরিষাবাড়ী প্রতিনিধিঃজামালপুর জেলা সরিষাবাড়ী পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড বলারদিয়ার গ্রামে বাড়ছে মাদকসেবী ও ব্যাবসা।মাদকের ছড়াছড়িতে এলাকার উড়তি বয়সের যুবক থেকে শুরু করে ছাত্র ও যুব সমাজ মাদক মরণ নেশায় জড়িয়ে দিনের পরদিন ধব্বংসের মুখে যাচ্ছে ।প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে দেখা যায়,সরিষাবাড়ীর পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ড বলারদিয়া গ্রামের মোঃ আব্দুস সাত্তারের ছেলে মোঃ রুবেল মিয়া মনগড়া ভাবে অপতৎপর অপৃতিকর পরিবেশ সৃষ্টি করে, ব্যক্তি, পারিবারিক তথা সামাজিক ব্যবস্থাকে চরমভাবে বিপরযস্ত করছে।এলাকায় সন্ধ্যার পর এসব স্থান মাদকসেবীদের আড্ডাখানায় পরিণত হয়।জনসাধারনের কাংখিত চাওয়া পাওয়াকে উপেক্ষা করে গোষ্টিগত ও পেশি শক্তি এবং এলাকার সমন্বয় হীন নেতৃত্ব স্থানীয়দের প্রভাব খাটিয়ে অবাদে বেচাকেনা করছে মাদকের।হিরোইন, ফেনসিডিন, পেথিডিন ত্র“য়ের জন্য প্রত্যন্ত অঞ্চলথেকে ছুটে আশা, নেশা গ্রস্ত তথা বাইক বা মোটর সাইকেল,সিএনজির অবিরাম আনাগোনায় এলাকার সাধারণ লোকজন এখন ব্যাপকভাবে বিপর্যস্ত তাদের ছেলে মেয়েদের ভবিষ্যত নিয়ে।বলারদিয়ার ব্রীজ (ঈদ গাহ মাঠ)থেকে সাত্তারের বাড়ী যাতায়াতের কাচা রাস্তাটিতে প্রতিদিন আনুমানিক কয়েক লাখ টাকার মাদক কেনাবেচা হচ্ছে।বিষেশ ভাবে আরো জানা যায় ,মাদকাশক্তিতে স্কুল-কলেজ পড়–য়া ছাত্র, যুবক,কৃষক, শ্রমিক ভ্যান চালক ক্রমান্নয়ে নানা প্রকার নেশায় আশক্তি হয়ে পড়ছে।মাদকের টাকা যোগাঢ় করতে মাদক সেবীরা জড়িয়ে পড়ছে চুরি ডাকাতিতে।যার কারনে এলাকা জুড়ে চুরি ছিনতাই ডাকাতি অহরহ ঘটছে তারও কোন প্রকার প্রতিকার হচ্ছেনা।আঃ সাত্তার ও তার ছেলে রুবেল মিয়ার বংশতগত দাপটে এলাকার সাধারন মানুষ জিম্মি হয়ে আছে । যদি সমাজের কোন সচেতন ব্যক্তি প্রতিবাদ করে,তার উপর চলে আসে বিভিন্ন অপবাদ ও মিথ্যা মামলা দিয়ে ফাসিয়ে দেওয়ার হুমকি।এলাকার অপতৎপরতায় ভোগা প্রভাব শালীদেরকে হাত করে এ ব্যাবসা চালিয়ে লাভবান হয়েছে একই শ্রেণীর স্বার্থন্বেষী চক্র।৩নং ওয়ার্ড কাউন্সীলর মোঃ নুরুল ইসলাম বলেন, রুবেলকে অনেক বার পুলিশ ধরে নিয়েছে হিরোইন, ফেনসিডিন,পেথিডিন ব্যবসার জন্য।জনগন যখন আমাকে নির্বাচিত করেছেন ,এই মাদকের ব্যাপারে প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে আমি কঠোর ভ’মিকাপালন করব।অন্যদিকে পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র রোকনুজ্জামানের সাথে মাদকের বিষয়ে কথা বললে তিনি জানান,পৌরসভার মাদক মুক্ত করাই হবে আমার প্রধান কাজ।মাদকের কারনেই এলাকায় চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই হচ্ছে ।পুলিশ, র‌্যাব, ডিবি ও সরকারের সহযোগিতায় মাদক নির্মূল করা আমার লক্ষ ও উদ্দেশ্য থাকবে। আদর্শ ও ডিজিটাল পৌরসভাগড়তে এলাকার জনগন, সরকার, পুলিশ ও মিডিয়ার সহযোগিতার জন্যজোর দাবি জানাচ্ছি।যুব-সমাজকে মাদকের এই করাল গ্রাস থেকে বাঁচাতে সরকার ও প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকরতাদের সু-নজর কামনা করছি ।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451