রবিবার, ২৯ মে ২০২২, ০২:৫২ অপরাহ্ন

বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার টানা তিন দিনের অনশন।মেয়ের পরবিাররে দাবি জোর করে আটকে রাখা হয়ছে।

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৭ আগস্ট, ২০১৬
  • ১৩৫ বার পড়া হয়েছে

কুড়ুলগাছি প্রতদিনিঃ দামুড়হুদার কুড়লগাছি গ্রামে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করে টানা তিন দিনের অনশন করছে প্রেমিকা যমুনা খাতুন।মেয়ের পরবিাররে দাবি সুজনের পিতা মাতা যমুনাকে জোর করে আটকে রেখেছে।

জানাগেছে , দামুড়হুদার উপজেলার  কুড়ুলগাছি গ্রামরে আকবার আলি মিস্ত্রীর ছেলে সুজন মিয়া তার আপন চাচা নেংটে আলীর মিস্ত্রীর মেয়ে যমুনা খাতুনের সাথে দীর্ঘদিন থেকে প্রেমের
সম্পর্ক চালিয়ে আসছেন এবং সুজন যমুনার
সাথে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলেন। প্রায়
এক মাস আগে বিষয়টি জানাজানি হলে তারা দুজনে অজানার উদ্ধেশ্যে পাড়ি জমায়। পরবিাররে লোকজন পরে তাদের উদ্ধার করে যমুনা খাতুনকে  তার মামার বাড়ি রেখে আসে। প্রেমের টানে আবার এক পর্যায় গত ২৩ আগষ্ট মঙ্গলবার মামার বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার নাম করে পালিয়ে এসে প্রেমিক সুজনের  বাড়ি অবস্থান করে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করে যমুনা । প্রেমিক সুজন যতদিন তাকে বিয়ে না করবে এবং দু’পক্ষের পরিবার যতদিন মেনে না নেবে ততদিন তার এ অনশন অব্যাহত থাকবে বলে জানান প্রেমিকা যমুনা খাতুন। তবে এই ঘটনার পর থেকে প্রেমিক সুজন উধাও বলে খবর মিলেছে।
এদিকে,  যমুনার পরিবারের দাবি যমুনাকে সুজন ও তার পরিবারের লোকজন জোর করে আটকিয়ে রেখেছে। সে তার চাচাতো ভাই বিয়ে করতে রাজি নয়। তাকে জোর করে আটকিয়ে রেখে সুজন ও তার পরিবার সম্পত্তি হাতানোর জন্য আমার মেয়েকে বিয়ে করতে চাচ্ছে। সর্বপরি ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় মুখোরচক গল্পের সৃষ্টি হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451