বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৩ অপরাহ্ন

চাঁপাইনবাবগঞ্জের চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্রী কনিকা হত্যা মামলায় বখাটে আব্দুল মালেকের মৃত্যুদণ্ড

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭
  • ২০৪ বার পড়া হয়েছে

 

এ আর পলাশ,চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি:

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার মহিপুরে স্কুল ছাত্রী কনিকা রানী

ঘোষকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগে বখাটে আব্দুল মালেককে মৃত্যুদ-ের

রায় প্রদান করেছেন আদালত।

এছাড়া আদালত অপর তিন স্কুল ছাত্রীকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করার

অভিযোগে ৩২৪ ধারায় তিন বছরের কারাদন্ড ৩২৬ ধারায় ১০ বছরের কারাদন্ড

ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদন্ড এবং ৩০৭ ধারায়

১০ বছরের কারাদন্ড ও ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৩ মাসের কারাদন্ড

প্রদান করেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিশু আদালতের বিচারক এবং অতিরিক্ত

জেলা ও দায়রা জজ জিয়াউর রহমান আসামীর উপস্থিতিতে বুধবার এ রায়

প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আব্দুল মালেক চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার

দিয়াড় ধাইনগর গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে। মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে

জানা যায়, ২০১৬ সালের ২৭ মে সকালে ধাইনগর গ্রামের লক্ষণ ঘোষের

মেয়ে কনিকা রানীসহ চার ছাত্রী প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে

মহিপুর এলাকায় আব্দুল মালেক তাদের ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত

করে। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে

আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কনিকা রানী ঘোষকে মৃত ঘোষনা করেন।

এসময় আরও ৩ ছাত্রী একই গ্রামের আব্দুল খালেকের মেয়ে তারিন

আফরোজ (১৫), অরুনবাড়ি মহিপুর গ্রামের মোঃ তাজেমুল হকের মেয়ে

তানজিমা আক্তার (১৪) ও বেহুলা গ্রামের মোকবুল হোসেনের মেয়ে

মরিয়ম আক্তার আহত হয়। এরা মহিপুর এস এম দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের

১০ম শ্রেণীর ছাত্রী। এঘটনায় ওই দিনই স্থানীয়রা আটক করে আব্দুল

মালেককে পুলিশে সোপর্দ করে।

এঘটনায় নিহত কনিকা রানীর মা অঞ্জলি রানী বাদী হয়ে ওই দিন রাত

১০টার দিকে আব্দুল মালেকের বিরুদ্ধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর থানায়

হত্যা মামলা দায়ের করেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451