সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:৩৭ পূর্বাহ্ন

সরিষাবাড়ীতে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়িয়ে নিল জনপ্রতিনিধি ।

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ১৪৬ বার পড়া হয়েছে

জাহিদ হাসান, জামালপুর প্রতিনিধি
জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে মাদক ব্যবসায়ীকে ছাড়িয়ে নিয়েছেন জনপ্রতিনিধি। গতকাল সোমবার সরিষাবাড়ী থানায় এ ঘটনা ঘটে।
পুলিশ, স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী উপজেলার মহাদান ইউনিয়নের মহাদান গ্রামের মৃত বাদশা’র ছেলে বাবলু মিয়া ও কামরাবাদ ইউনিয়নের কয়ড়া গ্রামের শামছুল হকের ছেলে ফারুক মিয়াকে মাদক ব্যবসা করার সময় পুলিশ আটক করে।
মহাদান গ্রামের প্রধান সড়কের পার্শ্বে চিহ্নিত স্থানে রাত আনুমানিক দুটার দিকে মাদক বিক্রি করার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সরিষাবাড়ী থানার উপরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালায়। মাদকসহ তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সোমবার দুপুরে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফসার হোসেন, মহাদান ইউনিয়নের ইউপি সদস্য লাভলু মিয়া, ভাটারা ইউপির ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবুল কালাম আজাদ ও কামরাবাদ ইউপির ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য চান মিয়া বিশেষ তদবির করে থানা থেকে তাদের নিয়ে যায়। দুই মাদক ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেওয়ার ঘটনায় সুশীল সমাজ এবং স্থানীয় জনগণের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। গত রোববার উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের ফুলদহ গ্রামে মাদকাসক্ত উমর আলী মাদক কেনার টাকা না পেয়ে পিতা মমতাজ মন্ডলকে (৬৫) পিটিয়ে মেরে ফেলার ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে দুই মাদক ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেওয়ার ঘটনায় এ ক্ষোভ দেখা দেয়।
এলাকাবাসী জানান, সরিষাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম খান যোগদান করার পর থেকেই উপজেলার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের চিহ্নিত করে বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে জেল হাজতে পাঠায়। মাদক ব্যবসায়ীরা এই প্রশংসনীয় পুলিশ অভিযানের পর থেকে প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছেন। তারা অনেকেই গ্রেফতার আতঙ্কে রয়েছেন। মাদক ব্যবসা বন্ধ হলে মাদকসেবীদের সংখ্যাও কমে আসবে বলে অনেকেই মনে করেন। এভাবে যদি আটক করা মাদক ব্যবসায়ীদের তদ্বির করে ছাড়িয়ে নেওয়া হয় তবে কখনো মাদকের ভয়াবহতা কমবে না বলে তারা দাবী করেন। হুমকির মুখে পড়ে যাবে আগামী দিনের ভবিষ্যৎ আজকের যুব সমাজ।
দুই মাদক ব্যাবসায়ীকে মাদকসহ আটকের বিষয়টি পাশ কাটিয়ে সরিষাবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান বলেন, ওসি স্যার দু’জনকে থানায় নিয়ে আসার জন্য বলেছিল। তাই তাদেরকে থানায় আনা হয়েছিল। পরে তাদেরকে দুপুরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451