বুধবার, ২২ জুন ২০২২, ১০:১২ অপরাহ্ন

সালিশে স্কুলছাত্রীসহ ৩ নারীকে পেটালেন ইউপি চেয়ারম্যান

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ২৫ আগস্ট, ২০১৬
  • ১৫০ বার পড়া হয়েছে

নোয়াখালী: নোয়াখালীর সূবর্ণচর উপজেলায় চরবাটা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেনের বিরুদ্ধে এক স্কুলছাত্রী (১৫) ও তার বাবা-মা এবং খালাকে পেটানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) দুপুরে ওই ছাত্রীর পরিবারের লোকজন সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন।

সোমবার (২২ আগস্ট) রাতে উপজেলার ২নং চরবাটা ইউনিয়ন পরিষদে একটি গ্রাম্য সালিশে স্থানীয় একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করেন ইউপি চেয়ারম্যান। এ সময় মেয়েটির বাবা ও মেয়ে এবং খালাকে পিটিয়ে আহত করেন চেয়ারম্যান।

ওই ছাত্রীর বাবা জানান, গত কয়েক মাস ধরে তাদের প্রতিবেশী হাসানের সঙ্গে পারিবারিক ঝগড়া বিরোধ চলছে। এ নিয়ে হাসান সোমবার সালিশ ডাকেন। রাতে ওই সালিশে উপস্থিত হলে কোনো আলোচন‍া ছাড়াই চেয়ারম্যান তাকে, তার স্ত্রী, শ্যালিকা বেদম মারধর করেন। একপর্যায়ে তার স্কুলপড়–য়া মেয়েকে চৌকিদার দিয়ে বাড়ি থেকে ধরে এনে সবার সামনে মারধর করেন।

এ সময় তার মেয়ে অচেতন হয়ে পড়ে। পরে চেয়ারম্যানসহ লোকজন চলে গেলে তারা মেয়েকে উদ্ধার করে চরজব্বর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন।

তিনি ‍অভিযোগ করেন, এ নিয়ে মামল‍া না করতে চেয়ারম্যান নানাভাবে হুমকি দিচ্ছেন। ফলে তারা ভয়ে পুলিশে অভিযোগ করেননি।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল অভিযোগ অস্বীকার করে মোবাইল ফোনের সংযোগ কেটে দেন। পরে একাধিকবার চেষ্টা করলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিজাম উদ্দিন  বলেন, বিষয়টি আমরা স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছ থেকে শুনেছি। তবে লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451