বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ১০:১২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

  সংখ্যা লঘু পরিবারকে রগ কেটে হত্যার পর শীতলক্ষা নদীতে ভাসিয়ে দেয়ার হুমকি

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় বুধবার, ২২ জুন, ২০১৬
  • ১৭৮ বার পড়া হয়েছে

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম ̈ান

হাবিবুর রহমান হারেজের বিরুদ্ধে এক সংখ্যা লঘু পরিবারের জমি দখল করেছে বলে

অভিযোগ উঠেছে। জবরদখলের বিষয়ে কোন প্রকার থানা পুলিশ করলে ওই সংখ ̈ালঘু

পরিবারের সদস ̈দের ভাইস চেয়ারম ̈ানের নিয়োজিত সন্ত্রাসীরা রগ কেটে হত ̈া করে

শীতলক্ষ ̈া নদীতে ভাসিয়ে দিবে বলেও হুমকি প্রদান করেছে। হুমকির পর থেকেই

সংখ ̈ালঘু পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার

সদর ইউনিয়নের পিতলগঞ্জ ঋষিপাড়া এলাকায় ঘটে জমি জবরদখলের ঘটনা। সংখ ̈ালঘু

পরিবারের সুচিত্রা রানী দাস জানান, পিতলগঞ্জ ঋষিপাড়া এলাকায় পৈত্রিক সুত্রে মালিক

হয়ে তার ̄^ামী সুনিল চন্দধ দাস যুগ যুগ ধরে সাড়ে ২২ শতাংশ ভোগদখল করে

আসছে। ওই জমির কিছু অংশ উপজেলা ভাইস চেয়ারম ̈ান হাবিবুর রহমান হারেজ μয়

করেছেন বলে দাবি করেছিলেন। তখন ভাইস চেয়ারম ̈ানসহ তার লোকজন জমিটি

জবরদখলের চেষ্টা চালিয়ে ছিলো। এ ব ̈পারে গত দুই বছর আগে তখনকার ইউএনও

লোকমান হোসেন, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম ও ̄’ানীয়

চেয়ারম ̈ান আবু হোসেন ভুইয়া রানু একটি সালিশি বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে

ভাইস চেয়ারম ̈ানের μয়ক…ত জমিটুকু টিকেনি। পরে তারা পুরো সাড়ে ২২ শতাংশ

জমিই সংখ ̈ালঘু সুনিল চন্দধ দাসকে বুঝিয়ে দেন। ওই বৈঠকে ভাইস চেয়ারম ̈ান

হাবিবুর রহমান হারেজেরও সম্মতি ছিলো। এদিকে, গত বেশ কয়েক দিন ধরেই ভাইস

চেয়ারম ̈ান হাবিবুর রহমান হারেজ তার লোকজনকে দিয়ে সুনিল চন্দধ দাসের সাড়ে

২২ শতাংশ জমির মধে ̈ ৫ শতাংশ জমি জবরদখলের চেষ্টা চালিয়ে আসছে। গত ম১⁄২লবার

সকালে হাবিবুর রহমান হারেজসহ তার লোকজন জমিটি জবরদখলের উদে ̈শে বিভিন্ন

ধরনের ফলজ গাছ রোপন করে। প্রতিবাদ করায় এবং কোন প্রকার থানা পুলিশ করলে

দখলকারীরা সুচিত্রা রানী দাসসহ পরিবারের সদস ̈দের রগ কেটে হত ̈ার পর শীতলক্ষ ̈া

নদীতে ভাসিয়ে দিবে বলে হুমকি প্রদান করা হয়। এরপর গতকাল বুধবার সকালে

জমিতে লাকরি (জ্বালানি) রাখার জন ̈ একটি ছোট ঘর নির্মাণ করে গেলে ভাইস

চেয়ারম ̈ানের লোকজন বাঁধা প্রদান করে। আবারো হুমকি­ধামকি প্রদান করে। খবর

পেয়ে পুলিশ ঘটনা ̄’ল পরিদর্শন করেছেন। ̄’ানীয়রা অভিযোগ করে জানান, ভাইস

চেয়ারম ̈ানের দাপট দেখিয়ে হাবিবুর রহমান হারেজ নিরীহদের জমি­জমা জবরদখল করে

আজ কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন। এছাড়া এলাকায় টেন্ডারবাজি

থেকে শুরু করে বিভিন্ন আধিপত ̈ বি ̄Íার করে চলেছেন তিনি। নিরীহ এলাকাবাসী

হাবিবুর রহমান হারেজের অত ̈াচারে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। রূপগঞ্জ সদর ইউনিয়নের

চেয়ারম ̈ান আবু হোসেন ভুইয়া রানু বলেন, নিরীহদের জমি জবরদখল করতে যাওয়াটা

সম্পূর্ণ অন ̈ায়। এছাড়া উপজেলা প্রশাসন ও ভাইস চেয়ারম ̈ানকে সামনে রেখেই

সংখ ̈ালঘু পরিবারকে জমি বুঝিয়ে দেয়া হয়েছিলো।

এ ব ̈পারে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম ̈ান হাবিবুর রহমান হারেজ বলেন, আমার

বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ ̈া ও বানোয়াট। আমি এলাকার গণ ̈মান ̈

ব ̈৩িবর্গকে নিয়ে আমার μয়ক…ত জমিটির সীমারা নির্ধারন করেছি। সংখ ̈ালঘু

পরিবারে জমিতে আমি জবরদখল করতে যায়নি। এখানে ষড়যন্ত্র করে আমাকে

সামাজিক ভাবে হেয় করার চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

(ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, সংখ ̈ালঘু পরিবারের জমি জবরদখলের সংবাদ পেয়ে

স১ে⁄২ স১ে⁄২ ঘটনা ̄’ল পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সংখ ̈ালঘু পরিবার থেকে অভিযোগ

দিলে তদন্ত মোতাবেক ব ̈ব ̄’া গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451