শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৫৩ অপরাহ্ন

ময়মনসিংহের নান্দাইলে পুলিশ সদস্য ও তরুণীকে থানায় দিলেন স্থানীয়রা

অনলাইন ডেস্কঃ
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ২৯ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহের নান্দাইলে তরুণীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে এক পুলিশ সদস্যকে থানায় সোপর্দ করেছে স্থানীয় জনতা। পুলিশ সদস্যের নাম আব্দুল কাইয়ুম (৩২)। তিনি নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুড়ি থানার লেপসিয়া পুলিশ ফাঁড়িতে কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত আছেন। তাঁর বাড়ি জামালপুর সদর থানার বেলটিয়া এলাকায়। তিনি বিবাহিত এবং দুই ছেলে সন্তানের বাবা। খবর পেয়ে তাঁর স্ত্রী থানায় ছুটে এসেছেন। নান্দাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান আকন্দ আজ শুক্রবার সকালে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার চর বেতাগৈর ইউনিয়নের চরউত্তরবন্দ গ্রামের আব্দুল মন্নাছের বাড়ি থেকে ওই তরুণীসহ পুলিশ সদস্যকে আটক করে স্থানীয়রা। আব্দুল মন্নাছ পুলিশ সদস্যের পূর্বপরিচিত। বৃহস্পতিবার সকালে মন্নাছের বাড়িতে যান আব্দুল কাইয়ুম। দীর্ঘ সময় পার হলেও পুলিশ সদস্য বাড়ি থেকে বের না হওয়ায় সন্দেহ হয় স্থানীয়দের। পরে তাঁরা ওই বাড়ির একটি ঘরে গিয়ে তরুণী ও পুলিশকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পান। কাছে গিয়ে ওই তরুণীর পরিচয় জানতে চাইলে কাইয়ুম তরুণীকে তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী বলে দাবি করেন। তরুণী সে কথা অস্বীকার করায় জনতা তাঁদের দুজনকেই আটক করে থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার মো. আহমার উজ্জামান  বলেন, ‘অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য এখনো বিয়ের কাবিননামা দেখাতে পারেননি। তরুণীর অভিভাবককে আসতে বলা হয়েছে। তারা মামলা করলে মামলা নেওয়া হবে এবং আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

দুই বছর আগে নান্দাইল থানায় কর্মরত অবস্থায় ওই তরুণীকে গোপনে বিয়ে করেছেন বলে দাবি করছেন পুলিশ সদস্য আব্দুল কাইয়ুম।

ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ আজ শুক্রবার সকালে বলেন, ‘পুলিশ সদস্যের প্রথম স্ত্রী রাতে নান্দাইল থানায় এসেছেন। পুলিশ সদস্য দুই স্ত্রীকে নিয়েই সংসার করতে চান। তবে ওই তরুণীর সঙ্গে বিয়ে না হয়ে থাকলে বা কেউ অভিযোগ দিলে পরে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2016-2021 BanglarProtidin
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451