বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৫২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

প্রতারক বিদেশিদের মূল টার্গেট এখন বাংলাদেশ

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শুক্রবার, ১০ জুন, ২০১৬
  • ১৬২ বার পড়া হয়েছে

ঢাকা: প্রতারক বিদেশিদের মূল টার্গেট এখন বাংলাদেশ। ভ্রমণ ভিসা নিয়ে এসে স্থানীয় অপরাধীদের সঙ্গে মিশে গিয়ে তারা তৈরি করছে ভয়ঙ্কর অপরাধ সিন্ডিকেট। পরিচয় গোপন করে অথবা একেক সময় একেক পরিচয়ে এবং ঠিকানায় থাকে বলে এদের শনাক্ত করাও কঠিন হয়ে পড়ে। আদালতে সোপর্দ করা ছাড়া উপায় থাকে না ফলে সহজে জামিনও পেয়ে যায়।

গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, শুধু মে মাসেই রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে এটিএম কার্ড জালিয়াতি, ইমেইল হ্যাকিং, বিদেশি জাল মুদ্রা তৈরি, মাদকসহ নানা অপরাধে আইনশৃঙ্খলা বাহীনির হাতে ধরা পড়েছে ২২ জন বিদেশি। এদের মধ্যে বেশিরভাগই ঘানা ও নাইজেরিয়ার নাগরিক।

এদের শনাক্ত করা যে জটিলতা তৈরি হয় সে বিষয়েই ইঙ্গিত করে বৃহস্পতিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার ও কাউন্টার টেরোরিজম (সিটি) ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘বিদেশি প্রতারকদের নিয়ে বড় বিপদে আছি। এদের ধরার পরে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখ যায় তাদের কাছে বৈধ কোনো পাসপোর্ট নেই। তাই নিজ দেশেও ফেরত পাঠানো যাচ্ছে না। আর দু’এক জনের কাছে পাসপোর্ট থাকলেও সেগুলোতে ঠিকানা ভুল দেয়া থাকে। তাই তাদের আদালতে হাজির করা ছাড়া উপায় থাকে না। এসব বিদেশি পরে আদালত থেকে জামিন নিয়ে পুনরায় প্রতারণার আশ্রয় নেয়।’

কিন্তু এই প্রতারক বিদেশিরা বাংলাদেশকেই কেন বেছে নিচ্ছে? এর উত্তরে তিনি বলেন, ‘বাঙালি অতিথি পরায়ণ। আর এ সুযোগটি নিয়েই ঘানা, নাইজেরিয়াসহ দক্ষিণ আফ্রিকার দেশগুলো থেকে বিদেশিরা প্রতারণার লক্ষ্য নিয়ে বাংলাদেশে আসছে।’

সর্বশেষ গতকাল বুধবার ৮ মে রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে নাইজেরীয় নাগরিক কিংসলে লিভিং স্টোন ও বাংলাদেশি নাগরিক সোনিয়া শারমিনকে গ্রেপ্তার করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। এরা বিভিন্ন ব্যক্তির ইমেইলের তথ্য চুরি করে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করার চেষ্টা করতো। তবে তারা এখন পর্যন্ত সফল হয়েছে কি না নিশ্চিত নয় পুলিশ।

১৮ মার্চ ইউক্রেনীয় বংশোদ্ভূত জার্মান নাগরিক শজেপ্যান মাজুরেক পিওতরকে ‘স্কিমিং ডিভাইস’ বসিয়ে এটিএম কার্ড জালিয়াতির অভিযোগে উত্তরা থেকে আটক করে ডিবি।

গত ১৮ মে প্রাইম ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে জালিয়াতি করে অর্থ উত্তোলনের সময় র‌্যাবের হাতে হাতেনাতে আটক হন চীনা নগরিক হু জুয়াং হুই (৩৮)। তার তথ্যের ভিত্তিতে ২৩ মে সাঞ্জু নামের এক চীনা নাগরিককে আটক করে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ। তিনিই হু জুয়াংসহ তিন চীনা তরুণকে নিজের বাসায় পেইং গেস্ট হিসেবে রেখেছিলেন।

এর আগে জাল টাকা তৈরির মেশিনসহ কোরীয় নাগরিকসহ একাধিক বিদেশিকে আটক করা হয়েছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451