বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::

তালায় স্বামী-সংসার ফিরে পেতে নববধূর আমরণ অনশন!

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৬
  • ২৬১ বার পড়া হয়েছে

 
সেলিম হায়দার
.তালা  

সাতক্ষীরার তালায় এক নববধূ স্বামী সংসার ফিরে পেতে শ্বশুর বাড়িতে আমরণ অনশনের করে চলেছে। বর্তমানে প্রতারক স্বামী হাসান নিজেকে রক্ষা করতে গা ঢাকা দিয়েছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি উপজেলার নোয়াকাটি গ্রামের শ্বশুর বজলু সরদারের বাড়িতে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ৪ বছর পূর্বে নোয়াকাটি গ্রামের মাহমুদ সরদারের মেয়ের সঙ্গে কলারোয়া উপজেলার ঝাউডাঙ্গা গ্রামের আজিবর সরদারের পুত্র শহীদ সরদারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর ঢাকায় এক গার্মেন্টসে চাকুরী নিয়ে তারা ঘর সংসার করতে থাকে। গত ৫/৬ মাস পূর্বে স্বামী শহীদের সাথে মনোমালিন্য হলে স্মৃতি তার পিত্রালয় নোয়াকাটি গ্রামে ফিরে আসে। এরপর থেকে প্রতিবেশী বজলু সরদারের পুত্র হাসান (২৫) স্মৃতির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর শুররুহয় মন দেয়া নেয়া। এক পর্যায়ে স্মৃতির গর্ভে অবৈধ সস্তান আসে।

এ ঘটনার মাস তিনেক পর স্মৃতি তার প্রেমিক হাসানকে গর্ভের সন্তনের কথা জানালে হাসান স্মৃতিকে বলে তোমার আগের স্বামী শহীদকে দ্রুত ডিভোর্স পাঠিয়ে দাও। প্রেমিকের কথা মতো স্মৃতি তার আগের স্বামীকে ডিভোর্স পাঠিয়ে দেয়। এরপর গর্ভের সন্তানের বৈধতা দিতে প্রথমে কোরআন শপথ পরে গত ২২ জুলাই মুসলিম শরীয়ত মোতাবেক ২ লাখ টাকার কাবিন নামায় বিবাহ রেজিষ্ট্রি করে নেন। একই সঙ্গে হাসান ও তার বোন ডলি বেগম স্মৃতির গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য চাপ দিতে থাকে। স্বামীর কথায় রাজি না হওয়ায় স্মৃতি তার পিত্রালয়ে ফেলে প্রতারক স্বামী হাসান নিজেকে রক্ষার্থে ১০/১২ দিন পূর্বে গা ঢাকা দিয়েছে। এদিকে স্বামী সংসার অধিকারের দাবিতে নববধূ স্মৃতি গত এক সপ্তাহ ধরে শ্বশুর বাড়ির বারান্দায় এক বিছানা ও বালিশ নিয়ে অনশন শুরু করেছে। অব¯’ান নেয়ার ঘটনায় উভয়পক্ষের মধ্যে এক সালিশি বৈঠক শুরু হয়। সালিশি সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী ২৫ জুলাই দিন ধার্য করা হয় এবং স্বামী হাসানকে একটি প্লাটিনা মোটর সাইকেল ও বরপক্ষের ৫০ জন মানুষকে খেতে দেয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। এই দিনটি সামনে রেখে নববধূ স্মৃতি তার পিত্রালয়ে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে থাকে। এর মধ্যে তার পূর্বের সিদ্ধান্ত বদল করে একটি ডিসকভার মোটর সাইকেল, নগদ দু’লক্ষ টাকা এবং বিয়ে উঠানোর দিন ৫০ জন বরযাত্রীর মানুষকে খেতে দিতে হবে বলে পুনরায় মত প্রকাশ করে এবং তা না হলে সে স্মৃতির ঘরে তুলে নিবে না বলে জানিয়ে দেয়।

এ খবর শুনে হাসানের বোনাই আ’লীগ নেতা হাসানুরের বাড়িতে সালিশের জন্য জড়ো হয়। সেখানে তারা সিদ্ধান্ত নেয় হাসান যেহেতু স্মৃতিকে বিয়ে করেছে সেখানে আবার নতুন কথা অগ্রহণযোগ্য। তাই তারা নববধূ স্মৃতিকে গত ইংরেজী ১২ জুলাই হাসানের বাড়িতে জোর করে উঠিয়ে দেয়। বর্তমান নববধূ স্মৃতি তার স্বামী সংসার ফিরে পেতে শ্বশুরালয়ের ঘরের বারান্দায় অব¯’ান নিয়েছে। এর আগে হাসান বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে গা ঢাকা দিয়েছে। এদিকে হাসানের পিতা-মাতা জানায়, আমরা এ বিয়ে মানি না। আমরা কখনই তাকে ঘরে তুলে নেব না।

নববধু স্মৃতি তার স্বামী সংসার ফিরে পেতে শ্বশুরালয়ের বারান্দায় অব¯’ান নিয়ে সেখানে মানবেতর জীবন যাপনসহ আমরণ অনশন করে চলেছে। বর্তমানে চাঞ্চল্যকর এ ঘটনায় টক অফ দ্যা তালাতে পরিণত হয়েছে।
 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451