শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নাগেশ্বরীতে সংবাদ টিভির ৫ম তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী উদযাপন ছাত্রলীগের সম্মেলনে আয়োজকদের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে মঞ্চ ছাড়লেন আ. লীগের চার নেতা যশোরে খাবার হোটেলে ঢুকে পড়ল কাভার্ড ভ্যান, পাঁচজনের মৃত্যু সড়ক পরিবহন মালিক ধর্মঘট শুরু, পাবনায় জনদুর্ভোগ চরমে অভিনেত্রী রোশনি ভট্টাচার্যের একই পাত্রকে দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে যাচ্ছেন হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ : দুই আসামির ফাঁসির আদেশ পেনাল্টি কিকগুলো আমি হলেও মিস করতাম না : তসলিমা ডিআরইউ নির্বাচনের পরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে একত্রে বগুড়ায় বস্তিবাসীর তথ্যে দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা লালমনি এক্সপ্রেস কভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়ার সুপারিশ

দক্ষিন পশ্চিমাঞ্চলের স্বর্ণ, মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান সিন্ডিকেটের গডফাদার রেজাউল দালাল আটক

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় সোমবার, ২৭ জুন, ২০১৬
  • ২৫৩ বার পড়া হয়েছে

ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ:

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর শহরের আদর্শপাড়ার একটি বাড়ি থেকে দক্ষিন

পশ্চিমাঞ্চলের স্বর্ণ, মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান সিন্ডিকেটের গডফাদার

রেজাউল ইসলাম পাঠান (৩২) ওরফে রেজাউল দালালকে অস্ত্র ও মাদকসহ ঝিনাইদহ

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৬দক্ষিন

পশ্চিমাঞ্চলের স্বর্ণ, মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান সিন্ডিকেটের গডফাদার
রেজাউল আটক করেছে।

এ সময় তার দুই সহযোগী মিলন (৩৮) ও নান্টু মল্লিক (৩৪) কে আটক করা

হয়। রেজাউল ইসলাম পাঠান কোটচাঁদপুর পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডের

কাউন্সিলর ও আদর্শপাড়ার মৃত মোমিন পাঠানের ছেলে। আটক মিলন হোসেন

কালীগঞ্জ উপজেলার বাকুলিয়া গ্রামের মোশাররফ হোসেনের ও নান্টু মল্লিক

চুয়াডাঙ্গাার জীবননগর উপজেলার কন্দবপুর গ্রামের নিয়ামত মল্লিকের ছেলে

বলে র‌্যাব জানান।

Jhenidah-arrest-photo-27-06

আটককৃতদের কাছ থেকে একটি বিদেশী পিস্তল, ৪০ রাউন্ড গুলি গুলি,

ফেনসিডিল, চাইনিজ কুড়াল, হাসুয়া, ইয়ারগানের বাট, ইয়াবা, লক্ষাধীক

নগদ টাকা ও পুলিশের পোশাকসহ বিভিন্ন রকমের অবৈধ জিনিস উদ্ধার করে

র‌্যাব। সোমবার বেলা ১১টার দিকে ঝিনাইদহ র‌্যাব কার্যালয়ে এক সাংবাদিক

সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ এর কোম্পানি কমান্ডার

মেজর মনির আহম্মেদ সাংবাদিকদের জানান, রোববার (২৬ জুন) দিনগত রাত

১টার দিকে ওই তিন মাদক ব্যবসায়ী অস্ত্র ও গুলি নিয়ে কোটচাঁদপুর শহরের

আদর্শপাড়ায় অবস্থান করছিলেন।

এমন খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি টহল দল সেখানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক

করে। এসময় তাদের কাছ থেকে এসব অস্ত্র, গুলি ও মাদক উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব

আরো জানায়, রেজাউল পাঠান দক্ষিনাঞ্চল পশ্চিমাঞ্চলের সোনা, মাদক ও অস্ত্র

চোরাচালান সিন্ডিকেটের গডফাদার হিসেবে পরিচিতি। ধীর্ঘদিন ধরে

তিনি এ কাজের সাথে জড়িত। তিনি পুলিশের সোর্স পরিচয় দিয়ে

নিজেই পুলিশের পোশাক পরে অভিযান পরিচালনা করতো বলে র‌্যাবের

জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে।

এদিকে এলকাবাসির অভিযোগ, কোটচাঁদপুরের এক জনপ্রতিনিধি ও

স্থানীয় পুলিশের কিছু অসাধু কর্মকর্তা এই রেজউল দালালকে সহায়তা করে

আসছিলো। ফলে বছরের পর বছর রেজাউল দালাল মুকুটহীন ভাবে রমরমা পরিবেশে

চোরাচালান ব্যবসা করে আসলেও তিনি ছিলেন আইনের উর্ধ্বে। অল্প দিনে

তার কোটিপতি হওয়ার পেছনে রয়েছে চমকে দেওয়ার মতো সব চাঞ্চল্যকর তথ্য।

আর এ সব করতেন তিনি র‌্যাব ও পুলিশেরে সোর্স পরিচয় দিয়ে।

ফলে ভয়ে এলঅকার কেও মুখ খুলতে সাহস পেতেন না। কেও প্রতিবাদ করলেই

তাকে ফেনসিডিল দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হতো। র‌্যাবের হাতে রেজাউল

দালালের আটক হওয়ার খবরে কোটচাঁদপুরসহ গোটা দক্ষিনাঞ্চলে চোরাচালান

সিন্ডিকেটে আতংক বিরাজ করছে বলেও একটি সুত্র জানায়। এ ব্যাপারে

সোমবার দুপুরে কোটচাঁদপুর থানায় অস্ত্র ও মাদক আইনে একটি মামলা

হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451