মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:২৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
নাগেশ্বরীতে সংবাদ টিভির ৫ম তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী উদযাপন ছাত্রলীগের সম্মেলনে আয়োজকদের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে মঞ্চ ছাড়লেন আ. লীগের চার নেতা যশোরে খাবার হোটেলে ঢুকে পড়ল কাভার্ড ভ্যান, পাঁচজনের মৃত্যু সড়ক পরিবহন মালিক ধর্মঘট শুরু, পাবনায় জনদুর্ভোগ চরমে অভিনেত্রী রোশনি ভট্টাচার্যের একই পাত্রকে দ্বিতীয়বার বিয়ে করতে যাচ্ছেন হবিগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ : দুই আসামির ফাঁসির আদেশ পেনাল্টি কিকগুলো আমি হলেও মিস করতাম না : তসলিমা ডিআরইউ নির্বাচনের পরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে একত্রে বগুড়ায় বস্তিবাসীর তথ্যে দুর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা লালমনি এক্সপ্রেস কভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে টিকার চতুর্থ ডোজ দেওয়ার সুপারিশ

বিচ্ছিন্ন হতে চলেছে দুই উপজেলা ও লাখো মানুষের সড়ক যোগযোগ

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক ::
  • আপডেট সময় রবিবার, ২৬ জুন, ২০১৬
  • ৩৫০ বার পড়া হয়েছে

মো.আখলাকুজ্জামান, গুরুদাসপুর প্রতিনিধি:

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার চাঁচকৈড় খলিফাপাড়া ব্রীজঘাট থেকে সিংড়ার বিলদহর বাজার পর্যন্ত

১০ কিলোমিটার পাকা সড়ক মেরামতের অভাবে ইটসুড়কি উঠে গিয়ে খানাখন্দে পরিণত হওয়ায়

মানুষ ও যানবাহন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ফলে ওই সড়কে প্রতিদিনে যাতায়াতকারী মানুষগুলো

দূর্ঘটনার শিকার হয়ে হাত পা সহ অকালেই ঝরে পড়ছে অনেকের প্রাণ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বিগত ২০০২ সালের প্রথম দিকে ওয়াপদা নির্মিত বন্যা নিয়ন্ত্রন

বাঁধকে পাকা সড়কে পরিণত করেন সড়ক ও জনপথ বিভাগ। এরপর থেকে ওই পাকা সড়কটি গুরুদাসপুর ও

সিংড়া উপজেলার সেতুবন্ধন হিসেবে কাজ করে। তখন থেকেই খলিফাপাড়া ব্রীজঘাট তথা

চাঁচকৈড় ব্যবসা কেন্দ্র থেকে যাত্রীবাহি পরিবহন ছাড়াও মালবাহি ভুটভুটি, ট্রলি, সিএনজি,

অটোরিকসা- ভ্যান ও শতশত মোটরসাইকেল সহ ভারি যানবাহন সবসময় চলাচল করে। এতে করে সড়কটি

প্রায় ৫ বছর পূর্বে ভেঙ্গেচুরে খানাখন্দে পরিণত হয় এবং প্রতিদিনই দূর্ঘটনার শিকার হচ্ছে ওই

সড়কে যাতায়াতকারী মানুষগুলো।

পরবর্তীতে ৬ মাস পূর্বে রাস্তাটি সংস্কারের আভাস পাওয়া গেলেও বর্তমানে সংশ্লিষ্ঠ ঠিকাদার

কাজ ফেলে পালিয়েছেন বলে এলাকাবাসীরা জানান। সড়কটির এ বেহাল দশায় সড়ক দূর্ঘটনার

আতঙ্কে গুরুদাসপুর-বিলদহর হয়ে সিংড়ার সড়ক যোগযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হতে চললেও এ নিয়ে

কারো মাথা ব্যথা নেই।

এ ব্যাপারে কথা বললে গুরুদাসপুর উপজেলা প্রকৌশলী মিজানুর রহমান জানান, রাস্তাটি সড়ক ও জনপথ

বিভাগের নিয়ন্ত্রনে থাকায় আমরা কিছু করতে পারব না। অপরদিকে নাটোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের

সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © banglarprotidin.com
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451