বুধবার, ০৮ জুলাই ২০২০, ০৭:৪৫ অপরাহ্ন

করোনা সন্দেহ হলেই আইডি-তে যান, পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্কঃ
  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৩ মার্চ, ২০২০
  • ৩৪ বার পড়া হয়েছে

নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে দেশ জুড়ে। তবে, এখনও পর্যন্ত এ রাজ্যেকেউ সংক্রামিত হননি। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস নিয়ে এ বার রাজ্যবাসীকে সতর্ক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভিড় জায়গা এড়ানোর পাশাপাশি করমর্দন না করা, সন্দেহজনক পরিস্থিতি তৈরি হলে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে গিয়ে পরীক্ষা করানোর পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

শুক্রবার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে ‘খেলাশ্রী’ প্রকল্পের আওতায় কৃতী ক্রীড়াবিদদের সম্মান জানাতে বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন হয়েছিল। ক্রীড়া ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন ক্লাবকে আর্থিক অনুদানও দেওয়ার কথা ছিল সেখানে। কিন্তু নোভেল করোনা নিয়ে কেন্দ্রীয় নির্দেশিকার জেরে এ দিন অনুষ্ঠানে কাটছাঁট করেন মুখ্যমন্ত্রী। হাতে হাতে অনুদান দেওয়ার পরিবর্তে, দুর্গাপুজোর সময় যেমন অনুদান পৌঁছে দেওয়া হয়, এ বারও সে ভাবেই অনুদান পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি। এ দিন মমতা বলেন, ‘‘কেন্দ্রীয় সরকার জমায়েত না করার নির্দেশিকা জারি করেছে। কিন্তু  বেশ কিছু দিন আগেই আজকের এই অনুষ্ঠান ঠিক করা হয়ে গিয়েছিল। তা বাতিল করার উপায় ছিল না। শেষ মুহূর্তে অনু্ষ্ঠান বাতিল হলে দূর-দূরান্ত থেকে যাঁরা এসেছেন, তাঁদের মন খারাপ হত। তাই অনুষ্ঠান বাতিল করিনি আমরা। বরং অনুষ্ঠান একটু ছোট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা।’’

তবে সাধারণ জ্বর-সর্দি-কাশি হলেই আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই বলেও আশ্বস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‘করোনাভাইরাস নিয়ে সকলে আতঙ্কিত। এখনও কোনও ওষুধও নাকি আবিষ্কার হয়নি। তাই নিজেদের ভাল রাখতে হবে। তবে সর্দি-কাশি হলেই ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই। সব সর্দি-কাশি করোনা নয়। সব মশার কামড়েই ডেঙ্গু হয় না। সব মাছই ইলিশ নয়। জ্বর বেশি হলে অবশ্যই ডাক্তার দেখাবেন। সেই সঙ্গে ১৪-২৭ দিন বিশ্রামও প্রয়োজন।’’

নেতাজি ইন্ডোরে মুখ্যমন্ত্রী।

নোভেল করোনার প্রকোপ এড়াতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশই সৌজন্য বিনিময়ের ক্ষেত্রে করমর্দন ছেড়ে হাত জোড় করে নমস্কার বেছে নিয়েছে। এ দিন মুখ্যমন্ত্রীও সেই পরামর্শই দেন। তিনি বলেন, ‘‘যত ক্ষণ না এই ভাইরাস যাবে, তত ক্ষণ আমরা কারও সঙ্গে হাত মেলাব না। কারণ এই ভাইরাস কিন্তু এক মানুষ থেকে অন্য মানুষে ছড়াচ্ছে। পশুদের থেকে কিন্তু এই ভাইরাস ছড়াচ্ছে না।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘কারও সঙ্গে দেখা হলে নমস্কার করবেন। কথা বলার সময় পাঁচ মিটার দূরত্ব বজায় রাখবেন। হাঁচি-কাশি পেতেই পারে। সব হাঁচি যদিও করোনা নয়, কিন্তু আমি হাঁচলে অন্যের ক্ষতি হতে পারে।  তাই হাঁচব-কাশব যখন, তখন কনুই দিয়ে নাক-মুখ ঢেকে রাখব। এতে  রোগ ছড়াবে না।’’

একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী প্রচুর জল খাওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘জল খাবেন বেশি করে। আধ ঘণ্টা অন্তত এক চুমুক জল খান। নইলে গরম কিছু খান। কাঁচা খাবার খাবেন না। ভাল করে রান্না করা খাবার খান। এক ঘণ্টা পর পর হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধুয়ে নিন। হাত ধোওয়ার সময় নখও ধুতে হবে। কনুই পর্যন্ত ধোবেন।’’ অযথা ভয় না পাওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন তিনি।  তাঁর কথায়, ‘‘সাধ্য মতো নিজেদের যত্ন নিন। কোনও রকম সন্দেহ হলে বেলেঘাটা আইডি-তে গিয়ে পরীক্ষা করিয়ে নিন। আমাদের সরকার মানুষের পাশে রয়েছে। ভিড় জায়গা এড়িয়ে চলুন।’’

Anbp

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 banglarprotidin
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451