মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন

বিহারে ছয় মাস শিক্ষক-সহপাঠীদের ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী!

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১২ জুলাই, ২০১৮
  • ১১ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্কঃ 

ভারতের পূর্ব বিহারে এক স্কুলছাত্রী (১৫) তার শিক্ষক ও সহপাঠীদের ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে জানা গেছে। পুলিশের কাছে করা এক অভিযোগে ছাত্রী জানায়, টানা ছয় মাস ধরে শিক্ষক ও সহপাঠীসহ মোট ১৯ জনের ধর্ষণের শিকার হতে হয় তাকে।

গতকাল বুধবার সিএনএনে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এসব কথা জানা যায়।

বিহারের সরণ জেলার একমা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অনুজ কুমারের বরাত দিয়ে সিএনএন জানায়, আসামিদের মধ্যে তিনজন প্রাপ্তবয়স্ক ও বাকি ১৬ জন স্কুলছাত্র। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত সাতজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অনুজ কুমার।

অনুজ আরো জানান, অভিযোগ অনুসারে প্রথমে তিন-চার সহপাঠীর একটি দলের ধর্ষণের শিকার হয় ওই ছাত্রী, পরে আরো কয়েকজন তা জেনে গেলে সবাইকে জানিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তারাও তাকে ধর্ষণ করে।

গত ৬ জুলাই থানায় অভিযোগপত্র দাখিল করা হলে এখন পর্যন্ত তার ভিত্তিতে পুলিশ স্কুলের অধ্যক্ষ, দুই শিক্ষকসহ চার ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে।

‘এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে’ উল্লেখ করে সরণ জেলার ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল বিজয় কুমার ভার্মা বলেন, ‘আমরা আদালত থেকে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে বাকিদের ধরতে অভিযান চালাব।’

বিজয় কুমার জানান, নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছেন আসামিরা।

ভারতে অপ্রাপ্তবয়স্ক ধর্ষণের ঘটনাগুলোর মধ্যে এটি সাম্প্রতিক সংযোজন। এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে ভারতের জম্মুতে নৃশংসভাবে ধর্ষণ ও খুনের শিকার হয় আট বছর বয়সী এক শিশু। তা নিয়ে গত এপ্রিলে ভারতজুড়ে প্রতিবাদে ফেটে পড়ে মানুষ।

অপ্রাপ্তবয়স্ক ও গণধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড বলে গত এপ্রিলে ভারত সরকার এক অস্থায়ী আইন চালু করে।

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর মতে, ভারতে প্রতিদিন প্রায় একশ যৌন নিপীড়নের অভিযোগ পাওয়া যায়। তথ্য অনুসারে ২০১৬ সালে সারা দেশে শিশুসহ পঞ্চান্ন হাজারের বেশি নারী ধর্ষণের শিকার হন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 banglarprotidin
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451