রবিবার, ১১ অগাস্ট ২০১৯, ০৭:৫৮ অপরাহ্ন

নওগাঁয় বিষ খাইয়ে একই পরিবারের তিনজনকে হত্যার অভিযোগ

বাংলার প্রতিদিন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম শনিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৯
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক;

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলায় রহস্যজনকভাবে একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। খাদ্যে বিষক্রিয়ায় কারণে তাঁদের মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন মহাদেবপুরের উত্তরগ্রাম ইউনিয়নের চকযথুরী গ্রামের অর্জুন কুমার (৩২), তাঁর স্ত্রী তিথী রাণী (২৫) ও সন্তান অরণ্য কুমার (৩)।

অর্জুনের শাশুড়ি যমুনা রাণী অভিযোগ করে বলেন, বেশ কিছুদিন ধরেই বাড়ির কাছের একটি বাগান পরিষ্কার করা নিয়ে অর্জুন ও তার ভাই অসীম কুমারের বিবাদ চলছিল। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল শুক্রবার রাতে দইয়ের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে অর্জুন, তাঁর স্ত্রী ও সন্তানকে খাইয়ে হত্যা করা হয়েছে।

মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন জানান, অর্জুন কুমার, তাঁর স্ত্রী তিথী রানী ও শিশু অরণ্য কুমার শুক্রবার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমাতে যান। কিন্তু প্রায় এক ঘণ্টা পর এক সঙ্গে তিনজনের বমি ও পেটব্যথা শুরু হয়। রাত ১২টার দিকে তাঁদের মহাদেবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। সেখানেই রাত ৩টার দিকে তিথী রানীর মৃত্যু হয়। এরপর আজ শনিবার সকালে নওগাঁ সদর হাসপাতালে অরণ্য কুমার ও নওগাঁ থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অর্জুন কুমারকে মৃত ঘোষণা করেন।

নওগাঁ সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মুনির আলী আকন্দ জানান, প্রাথমিকভাবে নিহতদের শরীরে বিষক্রিয়ার লক্ষণ পাওয়া গেছে। শক্তিশালী বিষক্রিয়ার কারণে তাঁদের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নওগাঁ সদর হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে মৃতদেহগুলো স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন এলে প্রকৃত রহস্য উম্মোচন হবে।

নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাকিবুল আক্তার বলেন, মৃতের স্বজন ও প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, খাদ্যে বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে তাঁদের মৃত্যু হয়েছে। তবে ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে।

-সুত্র,এন টিভি অনলাইন

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2019 banglarprotidin
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebazarbanglaro4451